বৈদেশিক বাণিজ্যের উন্নয়নে বাণিজ্যিক ব্যাংকের ভূমিকা

0
180

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশঃ বাণিজ্যিক ব্যাংক শুধুমাত্র অভ্যন্তরীণ ব্যবসা-বাণিজ্যে সহায়তা করে থাকে না বরং বৈদেশিক বাণিজ্য সম্পাদনে বিশেষভাবে সাহায্য সহযোগিতা করে থাকে৷ কারণ বর্তমান জটিল ও প্রতিযোগিতামূলক কারবারি বিশ্বে বাণিজ্যিক ব্যাংকের পত্যক্ষ ও পরোক্ষ সহযোগিতা ছাড়া দেশের বৈদেশিক বাণিজ্য পরিচালনা করা মোটেই সম্ভব নয়৷ নিম্নে বৈদেশিক বাণিজ্যে বাণিজ্যিক ব্যাংকের ভূমিকাসমূহ তুলে ধরা হলো-

১) Issue LC or letter of credit (এলসি বা প্রত্যয় পত্র ইস্যু)
আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে অচেনা আমদানিকারককে বাকিতে পণ্য সরবরাহ করতে রপ্তানিকারক আস্থা পায় না৷ এলসি বা প্রত্যয়পত্রের মাধ্যমে ব্যাংক আমদানিকারকের পক্ষে আমদানিকৃত পণ্যের মূল্য পরিশোধের নিশ্চয়তা প্রদান করে৷ ফলে আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্য সহজ হয়৷

২) Compliance with formalities (আনুষ্ঠানিকতা পালন)
আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্যের কাগজপত্র ও দলিলপত্র লেনদেনসহ সকল প্রকার আনুষ্ঠানিকতা বাণিজ্যিক ব্যাংকের মাধ্যমে সম্পাদিত হয়৷ বৈদেশিক লেনদেনের ক্ষেত্রে অনেক আনুষ্ঠানিকতা মেনে চলতে হয়৷ এ সকল আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্নের সকল কাজ বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো করে থাকে৷

৩) Grand loan in foreign trade (বৈদেশিক বাণিজ্যে ঋণদান)
দেশের চাহিদা এবং প্রত্যাশিত আয় অনুসারে বর্তমানে বাণিজ্যিক ব্যাংকসমূহ বৈদেশিক বাণিজ্যে মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি ঋণদান করে থাকে৷ আমদানি-রপ্তানিকে উৎসাহিত করার জন্য ব্যাংক বৈদেশিক বাণিজ্যে যথাযথ আর্থিক সুবিধা প্রদান করে থাকে৷

৪) Collection of foreign exchange (বৈদেশিক মুদ্রা সংগ্রহ)
আমদানিকারকদের আমদানি বিল পরিশোধের জন্য প্রচুর পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রার প্রয়োজন হয়৷ বাণিজ্যিক ব্যাংক প্রয়োজনীয় বৈদেশিক মুদ্রা সংগ্রহ করে আমদানিকারককে বিশেষভাবে সাহায্য করে৷

৫) Issue Travellers cheque (ভ্রমণকারীর চেক ইস্যু)
ব্যবসা সংক্রান্ত বিষয়ে বিদেশ ভ্রমণের সুবিধার্থে বাণিজ্যিক ব্যাংক ব্যবসায়ীদের অনুকূলে ভ্রমণকারীর চেক ইস্যু করে৷ ভ্রমণকারী চেকের সাহায্যে বিদেশে ভ্রমণকারী ব্যক্তি অনায়াসে উক্ত দেশের প্রচলিত মুদ্রা বিদেশী ব্যাংক থেকে সংগ্রহ করতে পারে৷

৬) Acceptance and payments of bill of exchange (বিনিময় বিলের স্বীকৃতি ও পরিশোধ)
বাণিজ্যিক ব্যাংক আমদানি ও রপ্তানি বাণিজ্যে ব্যবহৃত বৈদেশিক বিনিময় বিলের স্বীকৃতি প্রদান করে থাকে এবং ঋণের অর্থ আদায় করে ও পরিশোধ করে থাকে৷

৭) Settlement of foreign payments (বৈদেশিক দেনা পরিশোধ)
বাণিজ্যিক ব্যাংক বৈদেশিক বিনিময় বিল অথবা বৈদেশিক আজ্ঞাপত্রের মাধ্যমে আমদানি-রপ্তানি সংক্রান্ত দেনা-পাওনা পরিশোধের ব্যবস্থা করে৷ বৈদেশিক দেনা পাওনা পরিশোধের ক্ষেত্রে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো অছি হিসেবে কাজ করে৷

৮) Warehousing (গুদামজাতকরণ)
আমদানিকারকের সুবিধার্থে আমদানিকৃত পণ্যের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বাণিজ্যিক ব্যাংক গুদামজাতকরণের সুবিধা প্রদান করে থাকে৷ গুদামজাতকরণের ফলে পণ্যের সময়গত উপযোগ সৃষ্টি হয়৷ ব্যবসায়ের পণ্য সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য গুদামজাতকরণ অগ্রণী ভূমিকা পালন করে থাকে৷

৯) Representation (প্রতিনিধিত্ব)
বাণিজ্যিক ব্যাংক আমদানী ও রপ্তানীকারকের প্রতিনিধি হিসেবে বিভিন্ন ব্যবসায়িক তথ্য সরবরাহ, পণ্য বিক্রয়, পণ্যের প্রচার, বাজার অনুসন্ধান, চুক্তি সম্পাদন ইত্যাদি গুরুত্বপূর্ণ কার্য সম্পন্ন করে৷ নিরপেক্ষভাবে আমদানিকারক এবং রপ্তানিকারক ব্যাংক নামক প্রতিনিধির মাধ্যমে তাদের আর্থিক লেনদেন সম্পন্ন করে থাকে৷

পরিশেষে বলা যায় যে, যে কোন দেশের সামগ্রিক ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতিতে বাণিজ্যিক ব্যাংক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে৷ বিশেষ করে বৈদেশিক বাণিজ্যের প্রায় সম্পূর্ণটাই বাণিজ্যিক ব্যাংক নির্ভরশীল৷

Leave a Reply