1. bankingnewsbd@gmail.com : ব্যাংকিং নিউজ : ব্যাংকিং নিউজ
  2. mosharafnbl@yahoo.com : মোশারফ হোসেন : মোশারফ হোসেন
  3. msakanda@yahoo.com : ইবনে নুর : ইবনে নুর
  4. shafiqueshams@gmail.com : Shamsuddin Akanda : Shamsuddin Akanda
  5. surjoopathik@ymail.com : শরিফুল ইসলাম : শরিফুল ইসলাম
  6. tasniapopy@gmail.com : তাসনিয়া তাবাসসুম : তাসনিয়া তাবাসসুম



ইসলামী ব্যাংক গোল্ড ডেবিট কার্ডের সুবিধা ও অসুবিধা সমূহ

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড গ্রাহকদের সুবিধার্থে EMV চিপযুক্ত VISA ‘গোল্ড ডেবিট কার্ড’ (ডুয়েল কারেন্সি) চালু করেছে। এই ডেবিট কার্ড এর মাধ্যমে নগদ অর্থ উত্তোলন এবং ক্রয় সীমা বৃদ্ধির মাধ্যমে গ্রাহকরা ই-পেমেন্ট গেটওয়ে, এটিএম উত্তোলন এবং পিওএস পেমেন্ট সুবিধা সহ কেনাকাটা এবং বিদেশে গিয়ে ব্যবহার করতে সক্ষম হবেন। এছাড়াও এর মাধ্যমে গ্রাহকরা সিএনজি স্টেশন, হাসপাতাল, কনফারেন্স হল, কমিউনিটি সেন্টার, চিকিৎসা ইত্যাদির বিল প্রদান করতে পারবেন এবং শাখা প্রাঙ্গনের ভিড় থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন।

আইবিবিএল VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ড পাওয়ার নিয়মাবলী
ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর চেক বেয়ারিং গ্রাহকরা [ক) আল-ওয়াদিয়াহ চলতি হিসাব (AWCA), খ) মুদারাবা স্পেশাল নোটিশ ডিপোজিট হিসাব (MSND) এবং গ) মুদারাবা সঞ্চয়ী হিসাব (MSA)] VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ড পেতে তার নিজ নিজ শাখার মাধ্যমে অর্থাৎ যে শাখায় হিসাব খুলেছেন সে শাখায় আবেদনপত্র জমা দিতে হবে। একাউন্টে থাকা টাকার পাশাপাশি VISA ‘গোল্ড ডেবিট কার্ড’ এ ডলার এনডোর্সমেন্ট করে ডলার ব‍্যবহার করা যায়।

আরও দেখুন:
ইসলামী ব্যাংকের লোগোর তাৎপর্য
ইসলামী ব্যাংক ভিসা মানি ট্রান্সফার
এক নজরে ইসলামী ব্যাংক

আইবিবিএল VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ডের সুবিধা
✓ বিশ্বব্যাপী যে কোনও VISA মার্চেন্ট আউটলেট থেকে POS লেনদেনে অ্যাক্সেস;
✓ ফরেন কারেন্সি কোটা অনুযায়ী লেনদেন সীমা;
✓ স্থানীয় এনপিএসবি এবং ভিসা নেট উভয়ের সাথেই সামঞ্জস্যপূর্ণ;
✓ আন্তর্জাতিক অর্থ উত্তোলন স্থানীয় রেগুলেশন অনুযায়ী হবে;
✓ ভিসা গোল্ড কার্ডের মাধ্যমে দেশি বিদেশি যে কোন ই-কমার্স সাইট/ অনলাইনে পন‍্য ক্রয় ও ডোমেইন/ হোস্টিং এর বিল প্রদান করা যায়;
✓ স‍্যোশ্যাল মিডিয়া তথা ফেসবুক, ইউটিউব এ ভিডিও বা প্রোডাক্ট প্রোমোট ও বুস্ট করা যায়;
✓ Google Play Store থেকে অ্যাপ্লিকেশন ক্রয় করা বা গুগলের প্লে স্টোরের Search Console ID ক্রয় করা যায়;
✓ এটিএম বুথ থেকে Balance চেক করা যায়;
✓ লেনদেন সতর্কতা এসএমএস পাওয়া যায়;
✓ গ্রেট ডিসকাউন্ট, অফার এবং আকর্ষণীয় অন্যান্য সুবিধা পাওয়া যায়;
✓ কার্ড হারিয়ে গেলে দ্রুত নতুন কার্ড ইস্যু করা যায়;
✓ ২৪X৭ কন্ট্যাক্ট সেন্টার (১৬২৫৯) সেবা পাওয়া যায়;
✓ ২৪X৭X৩৬৫ দ্রুত, নিরাপদ এবং সুবিধাজনক ব্যাংকিং সেবা পাওয়া যায়;
✓ মার্চেন্ট আউটলেটে সহজেই অর্থ প্রদান করা যায়;
✓ হাসপাতাল/ চিকিত্সা বিল পেমেন্ট করা যায়;
✓ কমিউনিটি সেন্টার প্রোগ্রাম বিল পেমেন্ট করা যায়;
✓ বিমান টিকিট, হোটেল ফেয়ার ইত্যাদি বিল প্রদান করা যায়;
✓ জুয়েলারি ক্রয় করা যায়;
✓ ইলেকট্রনিক আইটেম এবং কম্পিউটার ক্রয় করা যায়;
✓ আসবাবপত্র, টাইলস, মার্বেল পাথর, নির্মাণ সামগ্রী ইত্যাদি ক্রয় করা যায়;
✓ নিজস্ব ব্যাংক ছাড়াও অন্য ব্যাংকের ATM বুথ থেকে টাকা তোলা যায়;
✓ শপিং, বিনোদন, ডাইনিং এবং ভ্রমণ ব্যয়ের জন্য বিশ্বব্যাপী ২৯ মিলিয়ন ভিসা মার্চেন্ট এ অ্যাক্সেস পাওয়া যায়;
✓ ব্রাঞ্চ POS এর মাধ্যমে ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত উত্তোলন করা যায়;
✓ যেকোনো অপারেটরে মোবাইল টপআপ করা যায়;
✓ ই-কমার্স ট্রানজেকশন (দেশ/ বিদেশ) করা যায়;
✓ VISA ছাড়াও OMNIBUS ও NPSB ATM নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে দ্রুত ATM সেবার সুবিধা পাওয়া যায়;
✓ প্রতিদিন সর্বোচ্চ ১,০০,০০০ টাকা নগদ উত্তোলন করা যায়;
✓ সপ্তাহের ৭ দিন, বছরের ৩৬৫ দিন, ২৪ ঘন্টা ভিসা গোল্ড ডুয়েল কারেন্সি কার্ডের সার্ভিস পাওয়া যায়।

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ (A Platform for Bankers Community) প্রিয় পাঠকঃ ব্যাংকিং বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ এ লাইক দিন এবং ফেসবুক গ্রুপ ব্যাংকিং ফর অল এ জয়েন করে আমাদের সাথেই থাকুন।

আইবিবিএল VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ডে ডলার লোড পদ্ধতি
সাধারণভাবে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ডটি হিসাবের বিপরীতে নিলেও ডুয়েল কারেন্সি কার্ডে লেনদেন করার জন্য ডুয়েল কারেন্সি কল সেন্টার থেকে চালু করে নিতে হবে। তবে এখন শাখা থেকেও করে দিচ্ছে। কার্ডে ডলার লোড করা জন‍্য পাসপোর্টের মেয়াদ থাকতে হবে। এর ক্যালেন্ডার বছরের জন্য এটি চালু করে নিতে হবে। অর্থাৎ ২০২১ সালের যে দিনেই আপনি এন্ডোর্স করান না কেন, তার মেয়াদ থাকবে ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ পর্যন্ত। এরপর ২০২২ সালে আপনাকে আবার এন্ডোর্স করাতে হবে। সরাসরি কার্ডে ডলার থেকে টাকা ও টাকা থেকে ডলারে রুপান্তর করা যাবে না। ব্যাংকের কল সেন্টারের মাধ্যমে কার্ডে ডলার থেকে টাকা ও টাকা থেকে ডলারে রুপান্তর করে নিতে হবে।

আইবিবিএল VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ডের লেনদেন সীমা
✓ এটিএম বুথ থেকে দৈনিক নগদ টাকা উত্তোলন সীমা- ১,০০,০০০ টাকা (লেনদেন সংখ্যা- ৩০ বার)।
✓ শাখা POS থেকে দৈনিক নগদ টাকা উত্তোলন সীমা- ১০,০০,০০০ টাকা (লেনদেন সংখ্যা- আনলিমিটেড)।
✓ দৈনিক ক্রয় সীমা (পিওএস ও ই-কমার্স)- ২,০০,০০০ টাকা (লেনদেন সংখ্যা- আনলিমিটেড)।
✓ ফান্ড ট্রান্সফার (আইবিবিএল এবং অন্যান্য ব্যাংক)- ২,০০,০০০ টাকা (লেনদেন সংখ্যা- ৫ বার)।
✓ বিদেশি সাইটগুলোতে প্রতিবারে সর্বোচ্চ ৩০০ ডলার ট্রানজেকশন করতে পারবেন। এর বেশি করতে পারবেন না।

আরও দেখুন:
ইসলামী ব্যাংকের স্মার্ট ডিজিটাল ব্যাংকিং অ্যাপ
ইসলামী ব্যাংক এমক্যাশ- মোবাইল ব্যাংকিং
ইসলামী ব্যাংক ‘ক্লাসিক ডেবিট কার্ড’

আইবিবিএল VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ডের অসুবিধা
✓ গোল্ড কার্ডে সরাসরি ডলার লোড করতে পারবেন না ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃপক্ষ ছাড়া।
✓ দেশের বাইরে গিয়ে কার্ডের পিন ব্লক হয়ে গেলে বা সম‍স‍্যা হলে ইসলামী ব্যাংকের একাউন্টের বিপরীতে যে ফোন নম্বর দেওয়া আছে, সে নম্বর থেকে ফোন দিতে হবে। এই নম্বর ছাড়া অন্য কোন নম্বর থেকে ফোন করলে কোন হেল্প পাবেন না।
✓ কার্ডের ডলার চেক করতে কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিয়ে ব‍্যালেন্স জানতে পারবেন।
✓ ইসলামী ব্যাংক ছাড়া অন‍্য কোন মাধ্যম থেকে কার্ডে ডলার ট্রান্সফার করা যাবে না। Skrill, Neteller, Payoneer, PayPal ইত্যাদি থেকে ডলার ট্রান্সফার/ লোড করা যাবে না।

আইবিবিএল VISA ডুয়েল কারেন্সি গোল্ড ডেবিট কার্ডের ফি এবং চার্জ
১. কার্ড ইস্যু ফি- ফ্রি।
২. কার্ড নবায়ন ফি- ৫০০ টাকা।
৩. কার্ড-এর বার্ষিক ফি- ৫০০ টাকা।
৪. কার্ড রিপ্লেসমেন্ট ফি- ৫০০ টাকা।
৫. এটিএম ক্যাশ উত্তোলন ফি- ফ্রি (আইবিবিএল এটিএম/ সিআরএম)।
৬. এটিএম ক্যাশ উত্তোলন ফি (অন্যান্য নেটওয়ার্ক/ অন্য ব্যাংকের এটিএম বুথ)- ভিসা/ এনপিএসবি/ মাস্টার কার্ড/ অন্যান্য সার্ভিস প্রোভাইডারের সাথে চুক্তি অনুযায়ী প্রযোজ্য হবে (সাধারণত অন্যান্য ব্যাংকের এটিএম থেকে টাকা উত্তোলন ফি ১৫ টাকা হয়ে থাকে)।
৭. ফরেন ট্রানজেকশন ফি (এটিএম ক্যাশ উত্তোলন)- ট্রানজেকশন এমাউন্টের ২% + ১ ডলার।
৮. ফরেন ট্রানজেকশন ফি (কেনা-কাটা)- ট্রানজেকশন এমাউন্টের ১%।
৯. পিন রিপ্লেসমেন্ট/ রিসেট (গ্রীন পিন) ফি- ৫০ টাকা।
১০. কার্ড ক্লোজিং ফি- ২০০ টাকা।
১১. ব্যালেন্স অনুসন্ধান ফি- ফ্রি (আইবিবিএল এটিএম/ সিআরএম)।
১২. ব্যালেন্স অনুসন্ধান ফি- (অন্যান্য নেটওয়ার্ক/ অন্য ব্যাংকের এটিএম বুথ)- ভিসা/ এনপিএসবি/ মাস্টার কার্ড/ অন্যান্য সার্ভিস প্রোভাইডারের সাথে চুক্তি অনুযায়ী প্রযোজ্য হবে (সাধারণত ব্যালেন্স অনুসন্ধান ফি ৫ টাকা হয়ে থাকে)।
* এছাড়াও সরকারী নিয়ম অনুসারে ফি ও চার্জের সাথে ভ্যাট ও ট্যাক্স যুক্ত হবে।

আরও দেখুন:
ইসলামী ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ‘গোল্ড ডেবিট কার্ড’
ইসলামী ব্যাংক ডুয়েল কারেন্সি ‘প্লাটিনাম ডেবিট কার্ড’
ইসলামী ব্যাংক ইন্টারনেট ব্যাংকিং- ব্যাংকিং এখন যখন তখন
ইসলামী ব্যাংক সেলফিন

Leave a Reply



লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করে অন্যকে দেখার সুযোগ করে দিন:

এই বিভাগের অন্যান্য লেখা





ইমেইল সাবস্ক্রাইব করুন

আমাদের নতুন নতুন পোষ্ট গুলো ই-মেইল এর মাধ্যমে পেতে রেজিষ্ট্রেশন করুন।




আর্কাইভ



বিভাগ সমূহ