ইসলামী ব্যাংক সমূহ সুদ বর্জন করে যেভাবে

0
4250

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশঃ আসসালামু আলাইকুম। আশা করি আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে সবাই ভাল আছেন। আজ আলোচনা করবো ইসলামী ব্যাংক সমূহ সুদ বর্জন করে কিভাবে সেই সম্পর্কে।

দেখুন ইসলামী ব্যাংক কিভাবে সুদ থেকে বেঁচে থাকে —-
১. বাংলাদেশ ব্যাংকে সব ব্যাংক SLR ( Statutory Liquidity Ratio) হিসাবে তার Total Deposit এর 19% রাখে। এর মধ্যে 5% রাখে Cash Form এ আর বাকী 14% রাখে বিভিন্ন Short Term Securities, Bond, এগুলি কিনে। এতে তারা এই 14% এর উপর সুদ নেয়। কিন্তু ইসলামী ব্যাংক যেহেতু সুদ নেয় না তাই তার জন্য নীতিই আলাদা। ইসলামী ব্যাংক 11% রাখে কিন্তু এটা থেকে কোনো সুদ নেয় না। এটা নিলে তো আপনাদেরকে আরো বেশি প্রফিট + সুদ দেয়া যেত। কিন্তু এটা শুধু প্রফিট ই দেয়।
২. Call Money মার্কেটে অন্য সুদী ব্যাংক Short Term এ গ্রাহক ধার দিয়ে অনেক লাভ করে কিন্তু ইসলামী ব্যাংক একই পণ্য (টাকা) দিয়ে এক্সসেস নেয়াটা সুদের জন্য নেয় না।
৩. অনেক পণ্য আছে যেমন সিগারেট, মদ, জুয়া এগুলিতে অনেক লাভ থাকলেও ইসলামী ব্যাংক এসব নিষিদ্ধ পণ্যের ব্যাবসায় যায় না।
৪. ইসলামী ব্যাংক “Convert money into goods then goods into money” এটা গ্রাহককে মাল বা পণ্য কিনে দেয় আর ওই বিক্রিত পণ্য থেকে গ্রাহক থেকে লাভ করে থাকে।
৫. ইসলামী ব্যাংক মুদারাবা নীতিতে গ্রাহক থেকে টাকা নেয়। এখানে গ্রাহক Saheb al Mal বা টাকার মালিক আর ব্যাংক মুদারিব বা সংগঠক। সেই সে তার বুদ্ধি সততা, পরিশ্রম দিয়ে ব্যাবসায় লাভ করে। যেমনটি হয়েছিল মুহাম্মদ (স) ও হজরত খাদিজার মধ্যে। খাদিজা টাকা দিয়েছিলেন আর মুহাম্মদ (স) তার সততা, মেধা, পরিশ্রম দিয়ে ব্যবসা করে লাভবান হন। গ্রাহক মালিক আর অফিসাররা কর্মচারী সম্পর্ক। কিন্তু সুদী ব্যাংকে দেনাদার পাওনাদার সম্পর্ক। টাকা দিয়ে দিলো চেক দেয়াতে তাহলে পাওনা শেষ হলো।

তাই ইসলামী ব্যাংকিং প্রক্রিয়াগত পার্থক্য। আপনি ওযু করে নামাজ পড়লেন আর আরেকজন ওযু ছাড়া নামাজ পড়লো। দুইজনে রুকু সেজদা করলো। একজনের নামাজ হলো অন্যজনের না।

কার্টেসিঃ সংগৃহীত

Leave a Reply