ব্যাংক লোন বা বিনিয়োগ শ্রেণীকরণ ও প্রভিশনিং পর্ব-২

0
2494

ব্যাংকের ঋণ বা বিনিয়োগ হলো ব্যাংকের অন্যতম একটি বিষয়। কেননা ব্যাংকের লাভ বা মুনাফা নির্ভর করে ঋণ বা বিনিয়োগের উপর। ব্যাংকসমূহ কর্তৃক প্রদত্ত বিনিয়োগ বা ঋণের কতিপয় অংশ অনেক সময় খেলাপি থেকে যায়। আর এই খেলাপি বা মেয়াদোত্তীর্ণ বা অনাদায়ী বিনিয়োগ বা ঋণকে তার সময়সীমা অনুযায়ী বাংলাদেশ ব্যাংক বিভিন্ন ভাগে ভাগ করেছে। Loan/Investment Classification ব্যাংকারদের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। যা ধারাবাহিকভাবে ৬ পর্বে প্রকাশিত হচ্ছে। আজ Loan/Investment Classification এর ২য় পর্ব প্রকাশ করা হলো। আশা করছি সকলের কাজে লাগবে।

• Importance of Loan/Investment Classification বা ঋণ শ্রেণীবিন্যাসকরণের গুরুত্ব
একটি নিয়মিত অভ্যন্তরীণ ঋণ পর্যালোচনা প্রক্রিয়ার মূল উপাদানগুলো হলো-
– ক্রেডিট শৃঙ্খলা শক্তিশালী করা;
– বিনিয়োগ/ঋণ পুনরুদ্ধারের অবস্থানগুলো উন্নত করা;
– বিনিয়োগ/ঋণের ভবিষ্যত পরিকল্পনা তৈরি করা;
– হিসাব এবং প্রত্যাশিত ক্ষতি হিসাব বিবেচনা করা;
– নিয়ন্ত্রকদের সুবিধার জন্য নিয়ন্ত্রক প্রতিবেদন করার জন্য শ্রেণীবিন্যাসগুলো ব্যবহার করা;
– ব্যাংকের বিনিয়োগ/ঋণ পোর্টফোলিওতে ক্রেডিট ঝুঁকি স্তরের মূল্যায়ন করা;
– ব্যাংকের নেট-মূল্য খুঁজে বের করা;
– ব্যাংকের আর্থিক সুসংগতি মূল্যায়ন করা।

• Effects of Loan/Investment Classification বা বিনিয়োগ/ঋণ শ্রেণীবিন্যাসকরণ এর প্রভাব
নিম্নে বিনিয়োগ/ঋণ শ্রেণীবিন্যাসকরণ এর প্রভাব সমূহ তুলে ধরা হলো-
– বিনিয়োগ/ঋণের উপর প্রয়োগ করা সুদ আয় হিসাবে নেওয়া হয় না কারণ এই ধরনের স্বার্থগুলো শুধুমাত্র বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে বিবেচনা করা হয়।
– বিনিয়োগ/ঋণ প্রদানের মাধ্যমে তাদের অর্জিত আয় থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক প্রদত্ত নির্দেশিকা অনুযায়ী ব্যাংকগুলোকে শ্রেণীবদ্ধ বিনিয়োগ/ঋণের প্রভিশন রাখার বিধান করা হয়েছে।
(BRPD সার্কুলার নং ১৪ ও ১৯)

• Categories of Loan/Investment and Advances বা বিনিয়োগ/ঋণ এবং এডভান্স এর ক্যাটেগরি সমূহ (শ্রেণীবিন্যাসকরণের উদ্দেশ্যে)
ব্যাংকের বিনিয়োগ/ঋন বা বিনিয়োগ শ্রেনীকরনের জন্য সমস্ত ঋন বা বিনিয়োগকে মোট চার ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। যা নিম্নরূপ-
ক) Continuous Loan/Investment বা চলমান বিনিয়োগ/ঋন,
খ) Demand Loan/Investment বা তলবী বিনিয়োগ/ঋন,
গ) Fixed Term Loan/Investment বা মেয়াদী বিনিয়োগ/ঋন ও
ঘ) Short-term Agricultural Credit & Short-term Micro-Credits বা স্বল্পমেয়াদী কৃষি ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগ/ঋন।
নিম্নে সংক্ষেপে এগুলো আলোচনা করা হলো-

ক) Continuous Loan/Investment বা চলমান বিনিয়োগ/ঋন
যে সকল বিনিয়োগ/ঋন কোন সুনির্দিষ্ট পরিশোধসুচী ব্যতিরেকে লেনদেন করা যায় কিন্তু বিনিয়োগ/ঋন পরিশোধের জন্য সর্বশেষ তারিখ এবং বিনিয়োগ/ঋন সীমা উল্লেখ থাকে তাকে চলমান বিনিয়োগ/ঋণ বলে। এ সকল বিনিয়োগ/ঋণ শ্রেনীবিন্যাসের জন্য সিএল-২ ফরমে রিপোর্ট করতে হয়।
উদাহরণ: Cash Credit (CC), Over Draft (OD) ইত্যাদি।

খ) Demand Loan/Investment বা তলবী বিনিয়োগ/ঋন
ব্যাংক কর্তৃক দাবী করার পর যে সকল বিনিয়োগ/ঋণ পরিশোধযোগ্য তাকে তলবী বিনিয়োগ/ঋণ বলে। এ সকল বিনিয়োগ/ঋণ শ্রেনী বিন্যাসের সিএল-৩ ফরমে রিপোর্ট করতে হয়।
উদাহরণ: Forced LIM, PAD, FBP, IBP ইত্যাদি।

গ) Fixed Term Loan/Investment বা মেয়াদী বিনিয়োগ/ঋন
যে সকল মেয়াদী বিনিয়োগ/ঋণ সর্বোচ্চ পাচঁ বছর সময়ের মধ্যে এবং পাচঁ বছরের অধিক সময়ের মধ্যে পরিশোধযোগ্য সে সকল বিনিয়োগ/ঋণকে মেয়াদী বিনিয়োগ/ঋণ বলে। এ সকল বিনিয়োগ/ঋণ শ্রেনীবিন্যাসের জন্য সিএল-৪ ফরমে রিপোর্ট করতে হয়।
উদাহরণ: Doctors Loan, Service Loan, Consumers Loan, Loan General, GHBL, Project Loan ইত্যাদি।

ঘ) Short-term Agricultural Credit & Short-term Micro-Credits বা স্বল্পমেয়াদী কৃষি ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগ/ঋন
স্বল্পমেয়াদী কৃষি ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগ/ঋণ বলতে সাধারনত ১২ মাস সময়ের মধ্যে পরিশোধ্য এবং বিনিয়োগ/ঋণের পরিমান সর্বোচ্চ ৫০,০০০ টাকা। স্বল্পমেয়াদী কৃষি ও ক্ষুদ্র বিনিয়োগ/ঋণ শ্রেনীবিন্যাসের জন্য সিএল-৫ ফরমে রিপোর্ট করতে হয়।
উদাহরণ: কৃষি বিনিয়োগ/ঋণ, অ-কৃষি বিনিয়োগ/ঋণ, স্ব-নির্ভর ক্রেডিট ইত্যাদি।

চলবে . . . . . . . . . . . .
লেখকঃ মোহাম্মদ শামসুদ্দীন আকন্দ, ব্যাংকার।

Leave a Reply