ডাচ্-বাংলা ব্যাংক জব সার্কুলার

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক অ্যাসিস্ট্যান্ট রিলেশনশিপ অফিসার নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক পিএলসি (Dutch Bangla Bank PLC) একটি স্বনামধন্য এবং শীর্ষস্থানীয় যৌথ-উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত বেসরকারী বাণিজ্যিক ব্যাংক। ব্যাংকটিতে মাল্টিড্রাইভ সার্ভিসেস লিমিটেড এর মাধ্যমে “অ্যাসিস্ট্যান্ট রিলেশনশিপ অফিসার” পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা আগামী ২১ জুলাই, ২০২৪ পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

পদের নাম: অ্যাসিস্ট্যান্ট রিলেশনশিপ অফিসার
✓ পদ সংখ্যা: নির্ধারিত নয়৷
✓ চাকরির ধরণ: চুক্তিভিত্তিক ও অস্থায়ী।
✓ প্রার্থীর ধরণ: নারী ও পুরুষ উভয়েই৷
✓ কর্মস্থল: বরিশাল, চট্টগ্রাম, ঢাকা, খুলনা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর, সিলেট।
✓ কর্মক্ষেত্র: ফিল্ড ও অফিস।

আরও দেখুন:
বিভিন্ন ব্যাংকের জব সার্কুলার

চাকরির দায়-দায়িত্বঃ
✓ ব্যাংকিং পণ্য বিক্রি করার ক্ষমতা/ ইচ্ছা থাকা (গৃহঋণ, ব্যক্তিগত ঋণ, গাড়ি ঋণ এবং অন্যান্য প্রাসঙ্গিক পণ্য)।

ব্যাংক, ব্যাংকার, ব্যাংকিং, অর্থনীতি ও ফাইন্যান্স বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ খবর, প্রতিবেদন, বিশেষ কলাম, বিনিয়োগ/ লোন, ডেবিট কার্ড, ক্রেডিট কার্ড, ফিনটেক, ব্যাংকের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ও বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলারগুলোর আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ 'ব্যাংকিং নিউজ', ফেসবুক গ্রুপ 'ব্যাংকিং ইনফরমেশন', 'লিংকডইন', 'টেলিগ্রাম চ্যানেল', 'ইন্সটাগ্রাম', 'টুইটার', 'ইউটিউব', 'হোয়াটসঅ্যাপ চ্যানেল' এবং 'গুগল নিউজ'-এ যুক্ত হয়ে সাথে থাকুন।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতাঃ
✓ ব্যবসায় স্নাতক/ বিএসএস/ বিকম/ বিএসসি/ বিবিএ/ এমবিএ ডিগ্রি থাকতে হবে।
✓ এমনকি যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ন্যূনতম স্নাতক ডিগ্রি থাকলেও হবে।
✓ অভিজ্ঞতার প্রয়োজন নেই।

চাকরির অন্যান্য শর্তাবলীঃ
✓ বয়স- ২৩ থেকে ৩৫ বছর।
✓ পুরুষ এবং নারী উভয়ই আবেদন করতে পারবেন।
✓ সেলস এ ক্যারিয়ার ডেভেলপের ইচ্ছা থাকা।
✓ ভাল যোগাযোগ এবং উপস্থাপনা দক্ষতা থাকা।
✓ চমৎকার আলোচনা এবং সরাসরি বিক্রয় দক্ষতা থাকা।

বেতন ও ভাতাঃ
✓ মাসে সর্বোচ্চ ১,০০,০০০ (এক লক্ষ) টাকা পর্যন্ত আয়ের সুযোগ (মাসিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সাপেক্ষে)।
✓ ইন্সুরেন্স সুবিধা।
✓ উৎসব বোনাস সুবিধা।

আবেদন পদ্ধতি
বাছাইকৃত প্রার্থীদের সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হবে। আগ্রহী প্রার্থীদেরকে নিম্নোক্ত লিংকের মাধ্যমে আবেদন করার জন্য বলা যাচ্ছে।
সার্কুলারটি দেখতে ও আবেদন করতে ক্লিক করুন- এখানে

হার্ড কপি
প্রার্থীদের জন্য বিশেষ নির্দেশনা: আগ্রহী প্রার্থীগণ আপনাদের জীবনবৃত্তান্ত পাঠিয়ে দিন নিন্ম উল্লেখিত ঠিকানায়: মাল্টিড্রাইভ সার্ভিসেস লিমিটেড, বাড়ী নং: ২০/২, (৩য় তলা), পশ্চিম পান্থপথ, উত্তর ধানমন্ডি, ঢাকা-১২০৫ (স্কয়ার হাসপাতালের বিপরীত পাশে, সন্ধ্যারাম প্লাজার পিছনের বাড়ি)।

আবেদনের শেষ তারিখঃ
✓ ২১ জুলাই, ২০২৪।

সোর্স: বিডি জবস

About Dutch-Bangla Bank PLC:
Dutch-Bangla Bank PLC (DBBPLC) is a Bangladesh’s most innovative and technologically advanced bank. Dutch-Bangla Bank PLC stands to give the most innovative and affordable banking products to Bangladesh. Amongst banks, Dutch-Bangla Bank is the largest donor to social causes in Bangladesh. It stands as one of the largest private donors involved in improving the country. Dutch-Bangla Bank is proud to be associated with helping Bangladesh as well as being a leader in the country’s banking sector.

DBBPLC is a scheduled joint venture private commercial bank between local Bangladeshi parties by M Sahabuddin Ahmed (Founder Chairman) and a Dutch company Financierings-Maatschappij voor Ontwikkelingslanden (FMO). The bank is often colloquially referred to as “DBBL”, “DBBPLC”, “Dutch Bangla” and “Dutch Bangla Bank”. Dutch-Bangla Bank PLC was established under the Bank Companies Act 1991 and incorporated as a public limited company under the Companies Act 1994 in Bangladesh in June 1996. It was a Dutch-Bangladesh joint venture and first Bangladeshi-European joint venture of bank in Bangladesh. DBBPLC commenced formal operation from June 3, 1996. The Bank is listed with the Dhaka Stock Exchange Limited and Chittagong Stock Exchange Limited.

ডিসক্লেইমারঃব্যাংকিং নিউজ’ চাকরি প্রদানকারী কোন সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান নয়। ‘ব্যাংকিং নিউজ’-এর ওয়েবসাইট, ফেসবুক পেজফেসবুক গ্রুপে প্রকাশিত যেকোনো চাকরি সংক্রান্ত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি/ যেকোনো ধরণের চাকরির তথ্য বা নিয়োগ-প্রক্রিয়ার দায়-দায়িত্ব স্ব-স্ব নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের। এ সংক্রান্ত কোনো অসত্য বা অসম্পূর্ন তথ্য অথবা আর্থিক লেনদেনের দায় ‘ব্যাংকিং নিউজ’-এর নয়। চাকরি প্রত্যাশী প্রার্থীদের এই ব্যাপারে সতর্ক হবার জন্য পরামর্শ দেওয়া যাচ্ছে। বিস্তারিত দেখতে ক্লিক করুন- এখানে

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক পিএলসি- ডিবিবিপিএলসি (Dutch Bangla Bank PLC- DBBPLC) একটি স্বনামধন্য এবং শীর্ষস্থানীয় বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডের যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংক। এটি এম. সাহাবুদ্দিন আহমদ (বাংলাদেশ) এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য ডাচ্ ফিন্যান্সিং সংস্থা [Financierings-Maatschappij voor Ontwikkelingslanden (FMO)] নামক নেদারল্যান্ডের একটি কোম্পানির যৌথ উদ্যোগে প্রতিষ্ঠা পায়। এটি ব্যাংকিং সেবা দেয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ব্যাংক কোম্পানি আইন ১৯৯১ দ্বারা প্রতিষ্ঠিত এবং কোম্পানি আইন ১৯৯৪ দ্বারা পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি হিসাবে নিবন্ধিত হয়। ব্যাংকটি আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে ৩ জুন, ১৯৯৬ সালে। ব্যাংকটি ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ-এ ২০০৪ সালে নিবন্ধিত হয়।

বর্তমানে সারা দেশে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক পিএলসি- ডিবিবিপিএলসি‘র ৪৯০৭টি এটিএম বুথ (দেশের সর্ব বৃহৎ এটিএম নেটওর্য়াক) রয়েছে। এছাড়া ব্যাংকটির প্রায় ৫৯৫৪টি এজেন্ট বাংকিং অফিস এবং ১১০০টি ফার্স্ট-ট্রাক রয়েছে। ব্যাংকটির বর্তমানে শাখার সংখ্যা ২৪১টি। ডাচ-বাংলা ব্যাংক পিএলসি কারেন্ট এবং সেভিংস অ্যাকাউন্ট সহ বিভিন্ন আমানত হিসাব, লোন বা ঋণ সুবিধা, SMS এসএমএস এলার্ট সার্ভিস, লকার সার্ভিস, ইন্টারনেট ব্যাংকিং, কার্ড (ডেবিট ও ক্রেডিট- ভিসা, মাস্টারকার্ড ও নেক্সাস কার্ড) সার্ভিস, এটিএম সার্ভিস, ফান্ড ট্রান্সফার এবং ইউটিলিটি বিলসহ বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংকিং সেবা প্রদান করে থাকে। এছাড়া ডাচ-বাংলা ব্যাংক পিএলসি ২০১০ সালে বাংলাদেশে সর্বপ্রথম মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস ‘রকেট’ চালু করে।

২০০৮ সালে ব্যাংকটির অনুমোদিত মূলধন ছিল ১০০০ মিলিয়ন টাকা। প্রতিটি ১০০ টাকা মূল্যমানের শেয়ারের বিপরীতে ৩.৯৪৭১৯টি বোনাস শেয়ার ইস্যু করার ফলে ব্যাংকের পরিশোধিত মূলধন ৭৯৮ মিলিয়ন টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ২০০৮ সালে দাঁড়ায় ১০০০ মিলিয়ন টাকায়। ২০২১ সালের মার্চ মাসে অনুমোদিত ও পরিশোধিত মুলধন দাড়ায় যথাক্রমে ১৫০০০ এবং ৫৫০০ মিলিয়ন টাকায়। বর্তমানে একজন বিদেশি পরিচালকসহ মোট ৭ জন পরিচালকের সমন্বয়ে গঠিত একটি পরিচালনা পর্ষদ ব্যাংকটির সামগ্রিক কার্যক্রম তদারকিসহ নীতি ও কৌশল অনুমোদন করে। উক্ত পর্ষদ বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন সাপেক্ষে ব্যাংকটির জন্য ১ জন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বা ব্যবস্থাপনা পরিচালক নিয়োগ করে। ৮ জন ডিএমডি ও ২৪ জন ঊর্ধ্বতন নির্বাহীসহ প্রায় ১০,০২২ জন কর্মকর্তাকর্মচারী রয়েছে ব্যাংকটিতে এবং গ্রাহক সংখ্যা প্রায় ৫১,১০০,০০০+ জন।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক স্থানীয় ও বৈদেশিক রেমিট্যান্স সম্পর্কিত গ্রাহক সেবাসহ সর্ব প্রকার বাণিজ্যিক ব্যাংকিং ব্যবসা পরিচালনা করলেও এর প্রধান ব্যবসা হচ্ছে ট্রেড ফিন্যান্সিং। এটি শিল্প প্রতিষ্ঠানসমূহকে সীমিত আকারে স্বল্প ও মধ্যমেয়াদি ঋণ প্রদান করে। ব্যাংকের বিভিন্ন প্রকার ঋণ এবং আমানত স্কীম গ্রাহকদের নিকট সমাদৃত হয়েছে। এসবের মধ্যে কয়েকটি উল্লেখযোগ্য স্কিম হচ্ছে মানি প্লান্ট, মাসিক মেয়াদি আমানত, দোকানিদের জন্য ক্ষুদ্রঋণ, ট্যাক্সি ক্যাব ক্রয়ের জন্য ঋণ, পরিবহণ ঋণ এবং ভোক্তা ঋণ।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক পিএলসি ২০০৩ সাল থেকে মেধাবী কিন্তু আর্থিকভাবে অসচ্ছল ছাত্রছাত্রীদেরকে এইচএসসি ও স্নাতক পর্যায়ে বৃত্তি প্রদানের পাশাপাশি এমফিল/পিএইচডি/পোস্ট ডক্টরাল স্তরে গবেষণার জন্য ফেলোশিপ প্রদান করে আসছে। ব্যাংকটি ২০০৩ সাল থেকে বিভিন্ন জেলায় ৪২০০ জনেরও বেশি দরিদ্র ঠোঁটকাটা ছেলেমেয়েদের প্লাস্টিক সার্জারি তথা ‘মধুর হাসি’ কার্যক্রমের মাধ্যমে মুখে হাসি ফিরিয়ে এনেছে। ডাচ্-বাংলা ব্যাংক ফাউন্ডেশন ৮০০ জন তালাকপ্রাপ্ত ও ৪৫১ জন এসিড আক্রান্ত মহিলাকে আর্থিক সহায়তা দিয়ে আত্মনির্ভরশীল করে তুলেছে এবং ৫০ জন এইডস আক্রান্ত রোগীকে ARV ঔষধ ও পুষ্টিকর খাবার প্রদান করেছে। এছাড়া ব্যাংকটি মানসিক প্রতিবন্ধী ও বিকলাঙ্গ শিশুদের পুনর্বাসন এবং ভবঘুরে শিশু-কিশোরদের অবস্থার উন্নতিসহ বিভিন্ন জনহিতকর কর্মসূচি পরিচালনা করে আসছে।

সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক পিএলসি ‘সেন্টার ফর অ্যাডভান্সড রিসার্চ ইন আর্টস অ্যান্ড সোসাল সাইন্সসেস’ নামক একটি আধুনিক রিসার্চ সেন্টার নির্মাণের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে ৯৭.৩ মিলিয়ন এবং বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম কমপ্লেক্সের ছয়তলা অলিম্পিক ভবন নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনকে ৩০ মিলিয়ন টাকা অনুদান দিয়েছে। ২০০৮ সালে সেন্টার ফর ডিসঅ্যাবল্ড কনসার্ন, বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ডিসঅ্যাবল্ড, বাংলাদেশ সোসাইটি ফর এডুকেশন অব দি ইন্টিলেকচুয়ালি ডিসঅ্যাবল্ড, খুলনা প্রতিবন্ধী সংস্থা, ঢাকা আহসানিয়া মহিলা মিশন, পল্লীবন্ধু কল্যাণ সংস্থা, নারীকণ্ঠ ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি, বাংলাদেশ মহিলা সমিতিসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে আর্থিক সাহায্য প্রদান করেছে। ব্যাংকটি ঢাকা ক্লিন ফুয়েল প্রজেক্ট-এর আওতায় রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস কোম্পানি লিমিটেডের পুনঃঅর্থায়নের জন্য ১৩টি সিএনজি রিফুয়েলিং স্টেশন ও ৬০টি পাবলিক ট্রান্সপোর্টকে অর্থ দিয়েছে। এছাড়া ব্যাংকটি ওয়াস্ট রিসাইকলিংভিত্তিক ক্লিন ডেভেলপমেন্ট মেকানিজম প্রজেক্ট-এর আওতায় শহরের ময়লা-আবর্জনা দিয়ে সার প্রস্ত্তত করার জন্য ২ মিলিয়ন ইউরো’র সমপরিমাণ টাকা প্রদান করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

রিলেটেড লেখা

Back to top button