এলসি বা ঋনপত্র কি?

0
1747

LC বা ঋনপত্র হচ্ছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে প্রচলিত অনেকগুলো অর্থ পরিশোধ পদ্ধতির মধ্যে একটি। এটি পৃথিবী ব্যাপি সবচেয়ে জনপ্রিয়, নিরাপদ ও সর্বজন গ্রাহ্য অর্থ পরিশোধ করার মাধ্যম। International Chamber of Commerce (ICC) কর্তৃক প্রনীত UCP এর সদস্য দেশ সমূহ LC বা ঋনপত্র ইস্যু করে থাকে। UCP-তে LC ‘র সাথে জড়িত সকল পক্ষের অধিকার, দায়-দায়িত্ব, করনীয়, বর্জনীয় ইত্যাদি উল্লেখ থাকে বিধায় আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে বহুলাংশে নিষ্কন্টকভাবে সম্পন্ন হচ্ছে। UCP Article No. 2-এ ঋনপত্রের প্রদত্ত সংজ্ঞাটি হুবুহু নিম্নরুপে তুলে ধরা হলো-

“Credit means any arrangement however named or described that is irrevocable and thereby constitutes a definite undertaking of issuing bank to honour a complying presentation.”

এখানে Irrevocable LC বলতে স্বার্থ সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষের সম্মতি ছাড়া ইস্যুকৃত এলসি সংশোধন বা সংযোজন করা যায় না- এমন এলসি বুঝায়।

আর Complying Presentation- বলতে ঋনপত্রের শর্তাবলী পরিপালন, ইউসিপি এবং আইএসবিপি- র ধারাসমূহ যথাযথভাবে পরিপালনপূর্বক ডকুমেন্টস উপস্থাপন করা বুঝায়।

এ সজ্ঞাটিকে আমরা নিচের মতো করে এভাবে সজ্ঞায়িত করতে পারি-
“ঋনপত্র হচ্ছে আমদানীকারকের পক্ষে ইস্যুকারী ব্যাংকের একটি সুনির্দিষ্ট অংগীকারনামা বা নিশ্চয়তাপত্র, যেখানে উল্লেখ থাকে যে, মালামাল সঠিক সময়ে জাহাজীকরণ করে ঋনপত্রের শর্তাবলী যথাযথভাবে পরিপালনপূর্বক দলিলাদি উপস্থাপন করা হলে রফতানীকারক বা তার মনোনীত ব্যাংক-কে মূল্য পরিশোধ করা হবে।”

ডকুমেন্টারি ক্রেডিট (Documentary Credit)
যে ঋনপত্রের বিপরীতে রফতানিকা্রক তার পন্য সর্বরাহের জন্য অর্থ প্রাপ্তির লক্ষ্যে আন্তর্জাতীক বানিজ্যে স্বীকৃত, গ্রহনযোগ্য এবং ব্যবহৃত কতিপয় দলিল উপস্থাপন পূর্বক দাবি পেশ করতে হয়, তাকে ডকুমেন্টারী ক্রেডিট বলে। এই দলিলগুলোর মধ্যে রয়েছে- Bill of Exchange, Commercial Invoice, Packing List, Bill of lading/TR/RR, Certificate of Origin, Insurance Documents ইত্যাদি। এসব দলিলের মধ্যে রফতানীকারক কিছু দলিল তৈরি করে থাকে আবার কিছু তৃতীয় কোন সংস্থা কর্তৃক ইস্যু করা হয়ে থাকে। এ সমস্ত দলিলের মাধ্যমে প্রমান করা হয় যে, ঋনপত্রের বিপরীতে পন্য জাহাজীকরন করা হয়েছে কিনা অথবা কি ধরনের, কত পরিমান পন্য, কি অবস্থায় জাহাজীকরন করা হয়েছে প্রভৃতি।কেবলমাত্র এসব ডকুমেন্টের উপর ভিত্তি করেই বিপুল পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময় হচ্ছে। ব্যাংকার কখনো নিজে গিয়ে সে মালামাল পরীক্ষা করে না। একারনেই এ ধরনের ঋনপত্রকে ডকুমেন্টারি ক্রেডিট বলে। UCPDC-600 এর অধীনে ইস্যুকৃত সমস্ত ডকুমেন্টারি ক্রেডিট ঋনপত্র।

ডকুমেন্টারি কালেকশন (Documentary Collection)
ঋনপত্র ছাড়াও শুধুমাত্র ক্রেতা-বিক্রেতার মধ্যে সম্পাদিত চুক্তির বিপরীতেও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সম্পন্ন হয়ে থাকে। চুক্তির বিপরীতে সম্পাদিত বাণিজ্যের ক্ষেত্রে ডকুমেন্ট সমুহ কালেকশন ভিত্তিতে মূল্য আদায়ের জন্য প্রেরণ করা হয়।

ক্রেতা বিক্রেতার মধ্যে সম্পাদিত চুক্তির অধীনে রপ্তানীকারক আমদানী কারকের আনুকুলে পন্য প্রেরণ করে।পরবর্তীতে ডকুমেন্টস প্রস্তুতপূর্বক রপ্তানীকারক তার নিজের ব্যাংকে জামা দেয়। উক্ত ব্যাংক রপ্তানীকারকের নির্দেশনা মোতাবেক মূল্য আদায়ের জন্য বিদেশী ব্যাংকে ডকুমেন্টস প্রেরণ করে। মুল্য প্রাপ্তির জন্য যে কোন দুই ধরনের মধ্যে একটি নির্দেশনা থাকতে পারে। যেমন- Delivered Against Acceptance (DA) অথবা Delivered Against Payment (DP)। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে কালেকশন পদ্ধতি নিয়ন্ত্রিত হয় আইসিসি কর্তৃক প্রকাশিত ইউআরসি-৫২২ এর অধীনে।

সুত্রঃ ইন্টারনেট

Leave a Reply