আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার সংক্রান্ত বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্কুলার

0
705

বাংলাদেশে অনুমোদিত সকল ডিলারের প্রধান কার্যালয়/ প্রিন্সিপাল অফিসকে উদ্দেশ্য করে আজ রবিবার ২৪/১১/২০১৯ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রানীতি বিভাগ থেকে আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে শিথিলতা আরোপ করে একটি সার্কুলার জারি করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক লেনদেনে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারে যে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছিল সেটি শিথিল করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সার্কুলারের মাধ্যমে। ফলে আবারও আগের পদ্ধতিতে আন্তর্জাতিক লেনদেনে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকরা।

আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ডে অবৈধ লেনদেন বন্ধে কড়াকড়ি আরোপের পর ভোগান্তিতে পড়েন তথ্য প্রযুক্তি খাতের ব্যবসায়ীসহ সাধারণ গ্রাহকরা। গ্রাহকদের কথা চিন্তা করে কড়াকড়ি আরোপের এই সিদ্ধান্ত পূনরায় শিথিল করল বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে যেন অবৈধ লেনদেন সংঘটিত না হয় সে বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শও দিয়েছে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংক।

আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করে অনলাইনে বিদেশ থেকে পণ্য বা সেবা কেনার ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করে গত ১৪ নভেম্বর সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই সার্কুলারে বলা হয়, আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ড দিয়ে অনলাইনে বিদেশি পণ্য বা সেবা কিনতে হলে গ্রাহককে অনলাইন ট্রানজেকশন অথরাইজেশন ফরম (ওটিএএফ) পূরণ করে মোবাইল অ্যাপ বা ইন্টারনেট প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে বা হার্ড কপি ব্যাংকে জমা দিতে হবে। ব্যাংক যাচাই-বাছাই করে অসংগতি না পেলে ক্রেডিট কার্ডকে শুধু সেই লেনদেনের জন্য সক্রিয় করে দেবে। ব্যাংকের পূর্ব অনুমোদন ছাড়া ঐ কার্ড কাজ করবে না।

মূলত অবৈধ লেনদেন বন্ধ ও অর্থপাচার রোধের যুক্তি দেখিয়ে এ সার্কুলারটি জারি করা হয়েছিল। কিন্তু বাস্তবে দ্বৈত মুদ্রার কার্ডের মাধ্যমে অর্থপাচারের কোনো তথ্য বা ঝুঁকি দেশি-বিদেশি কোনো প্রতিবেদন বা প্যানেল আলোচনায় উঠে আসেনি। তাই এই সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আনা হয়েছে। বিদ্যমান নিয়মে আন্তর্জাতিক ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারী গ্রাহকরা এককভাবে কোনো পণ্য বা সেবা মূল্যের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৩০০ ডলার পর্যন্ত পরিশোধের সুযোগ নিতে পারেন।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত আগস্ট পর্যন্ত দেশে ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১২ লাখ ৩ হাজার ৪২৭ জন। গত জুনে ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন হয়েছে এক হাজার ১৩১ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে জুন মাসে ২০ লাখ ৮৫ হাজারবার কার্ড ব্যবহৃত হয়েছে। এপ্রিল ও মে মাসে ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন ছিল যথাক্রমে এক হাজার ১০৮ ও ১ হাজার ২৫৩ কোটি টাকা।

সূত্রঃ বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগ, বাংলাদেশ ব্যাংক
এফই সার্কুলার লেটার নং-৩০, তারিখঃ ২৪/১১/২০১৯

Leave a Reply