এমডির অনুপস্থিতিতে ব্যাংকে তথ্য দিতে সই করতে পারবে ২ কর্মকর্তা

0

দেশে কার্যরত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো দৈনিক, সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, মাসিক ও চাহিদার আলোকে বিভিন্ন তথ্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জমা দিতে হয়। এসব তথ্য সংবলিত কাগজপত্রে স্বাক্ষর করতে হয় ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে (এমডি)। তবে এবার থেকে এমডির অনুপস্থিতে বা স্বাক্ষর করতে না পারলে পরের ধাপের মর্যাদাসম্পন্ন দুজন কর্মকর্তাকে স্বাক্ষর করতে বলা হয়েছে। এরপর প্রতিবেদন জমা দিতে হবে।

মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগথেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশে কার্যরত সকল তফসিলি ব্যাংকসমূহের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ (Banking News Bangladesh. A Platform for Bankers Community.) প্রিয় পাঠকঃ ব্যাংকিং বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ এ লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, অনেক সাময় দেখা যায়- ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ছুটিতে, ঢাকার বাইরে এমনকি দেশের বাইরেও অবস্থান করেন। এই বিষয়ে দেশে আলোচনা হয়- এমন সময়ে কাগজপত্র সঠিক সময়ে জমা দিতে নীতিমালায় পরিবর্তন না আনলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে সঠিক সময়ে তথ্য পাঠানো সম্ভব হয় না।

সার্কুলারে আরও বলা হয়, তথ্য জমাদানের অন্যান্য শর্তাবলী ঠিকই থাকবে। তবে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষরেই কেন্দ্রীয় ব্যাংকে তথ্য জমা দিতে হবে শুধু যৌক্তিক কারণে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পরের ধাপের দুজন কর্মকর্তার স্বাক্ষর গ্রহণযোগ্য হবে। কিন্তু অন্যান্য প্রতিবেদন যেমন বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন দাখিলে অবশ্যই ব্যবস্থাপনা পরিচালকের স্বাক্ষর থাকতে হবে।

এছাড়া উক্ত সার্কুলারে বলা হয়েছে, ব্যাংক কোম্পানী আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হলো। এই নির্দেশনা অবিলম্বে ব্যাংকগুলোকে কার্যকর করতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply