কোরবানীর পশুর হাটে জালনোট প্রতিরোধে ব্যাংক কর্মকর্তাদের দ্বারা নোট যাচাই সংক্রান্ত সার্কুলার

0

কোরবানির পশুর হাটে নগদ লেনদেনকে কেন্দ্র করে অপরাধীদের তৎপরতা ঠেকাতে গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও রাজধানীসহ দেশের সব জেলা-উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ পশুর হাটে থাকবে জাল নোট শনাক্তকরণ বুথ। ঈদের আগের রাত পর্যন্ত এসব বুথ থেকে বিনামূল্যে জাল নোট শনাক্তকারী সেবা দেবে ব্যাংকগুলো।

বৃহস্পতিবার ২৩ জুলাই, ২০২০ বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব কারেন্সী ম্যানেজমেন্ট (জাল ও অচল নোট প্রতিরোধ ও পর্যালোচনা কোষ) থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করে বাংলাদেশে কার্যরত সকল তফসিলি ব্যাংকসমূহের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে সমগ্র বাংলাদেশের অনুমোদিত কোরবানির পশুর হাট সমূহে (উপজেলা সদর পর্যন্ত) জাল নোট প্রচলন চক্রের অপতৎপরতা রোধ কল্পে জাল নোট সনাক্তকরণ বুথ স্থাপন করতঃ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্তৃক তফসিলি ব্যাংকগুলোকে নিম্নরূপ নির্দেশনা প্রদান করেছে-

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ (Banking News Bangladesh. A Platform for Bankers Community.) প্রিয় পাঠকঃ ব্যাংকিং বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ এ লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন।

১. ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন কর্তৃক অনুমোদিত পশুর হাটসমূহে জাল নোট শনাক্তকারী মেশিনের সহায়তায় অভিজ্ঞ ক্যাশ কর্মকর্তাদের দ্বারা হাট শুরুর দিন (২৮/০৭/২০২০) হতে ঈদের পূর্ব রাত (৩১/০৭/২০২০) পর্যন্ত যথাযথ স্বাস্থবিধি মেনে বিরতিহীনভাবে পশু ব্যবসায়ীদেরকে বিনা খরচে নোট যাচাই সংক্রান্ত সেবা প্রদান করার জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত তফসিলী ব্যাংকসমূহের তালিকা উল্লেখ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, ব্যাংকগুলোর সমন্বয়কারী কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট হাটে দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তাদের কার্যাদি মনিটর করবেন।
২. ঢাকার বাইরে যে সকল জেলায় বাংলাদেশ ব্যাংকের অফিস রয়েছে সেখানে সংশ্লিষ্ট সিটি করপোরেশন/পৌরসভার অনুমোদিত পশুর হাটসমূহে স্থানীয় বাংলাদেশ ব্যাংকের নেতৃত্বে গৃহীত অনুরূপ ব্যবস্থায় প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদানের জন্য ব্যাংকগুলোর আঞ্চলিক কার্যালয়/ প্রধান শাখাসমূহকে নির্দেশনা প্রদান করতে হবে।

৩. বাংলাদেশ ব্যাংকের অফিস নেই এমন জেলাসমূহের সিটি কর্পোরেশন, পৌরসভা ও থানা/ উপজেলার অনুমোদিত পশুর হাটে বিভিন্ন ব্যাংকের এতদসংক্রান্ত দায়িত্ব বণ্টনের জন্য সোনালী ব্যাংক লিঃ এর চেস্ট শাখাগুলোকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। সোনালী ব্যাংক লিঃ এর চেস্ট শাখা কর্তৃক বর্ণিত দায়িত্ব অনুযায়ী ব্যাংকগুলোর জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের শাখাসমূহ যাতে পশুর হাটগুলোতে নোট যাচাই সংক্রান্ত সেবা প্রদান করে সে বিষয়ে সংশ্লিষ্টদেরকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করতে হবে।
৪. বুথ স্থাপন কার্যক্রমের সুবিধার্থে ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতার জন্য সংশ্লিষ্ট সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ, জেলা মিউনিসিপ্যালিটি কর্তৃপক্ষ এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার/ সংশ্লিষ্ট পৌরসভা কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করা এবং সার্বিক নিরাপত্তার জন্য সংশ্লিষ্ট পুলিশ, র‍্যাব ও আনসার কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করা যেতে পারে।

৫. বুথে নোট যাচাইকালে কোন জালনোট ধরা পড়লে সে ক্ষেত্রে অত্র বিভাগের [বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব কারেন্সী ম্যানেজমেন্ট (জাল ও অচল নোট প্রতিরোধ ও পর্যালোচনা কোষ)] ০৪.০৭.২০০৭ তারিখের পরিপত্র নং জালনোটঃ০১(পলিসি)/২০০৭-১৯১ মোতাবেক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
৬. বুথে ব্যাংকের নাম ও তার সাথে ‘জালনোট সনাক্তকরণ বুথ’ উল্লেখপূর্বক ব্যানার/নোটিশ প্রদর্শন করতে হবে।
৭. ব্যাংক নোটের নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য সম্বলিত ভিডিও চিত্র, যা ইতিপূর্বে অত্র বিভাগের মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়েছিল তা ব্যাংকগুলোর শাখাসমূহে ঈদের আগ পর্যন্ত গ্রাহকদের জন্য স্থাপিত টিভি মনিটরগুলোতে পুরো ব্যাংকিং সময় পর্যন্ত প্রদর্শন করতে হবে।

৮. দায়িত্ব পালনকারী কর্মকর্তা/ কর্মকর্তাগণকে এতদসংক্রান্ত দায়িত্ব পালনের জন্য ব্যাংকগুলোর প্রযোজ্য বিধি অনুযায়ী প্রয়োজনীয় আর্থিক সুযোগ-সুবিধা প্রদান করতে হবে।
৯. পবিত্র ঈদ-উল-আযহা সমাপ্তির ১০(দশ) কর্ম দিবসের মধ্যে বর্ণিত নির্দেশনার সূত্রে ব্যাংকগুলো কর্তৃক পরিপালিত বিষয়াদির একটি প্রতিবেদন অত্র বিভাগে প্রেরণ করতে হবে। এবং
১০. জাল নোট সনাক্তকরণ বুথে নোট যাচাই সংক্রান্ত সেবা প্রদান কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা/ কর্মচারীদেরকে অবশ্যই যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট তফসিলী ব্যাংক কর্তৃক সুনিশ্চিত করতে হবে।

কোন হাটে কোন ব্যাংকের বুথ
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় এবার ১২ স্থানে কোরবানির পশু বেচাকেনা হবে। এসব হাটে মোট ১২টি বুথ স্থাপন করবে ব্যাংকগুলো। এর মধ্যে খিলগাঁও রেলগেট এলাকার খালি জায়গার হাটে থাকবে ব্র্যাক ব্যাংকের বুথ। জিগাতলা-হাজারীবাগ এলাকায় (ইন্সটিটিউট অব লেদার টেকনোলজি মাঠ) থাকবে এক্সিম ব্যাংক। লালবাগের রহমতগঞ্জ হাটে থাকবে মার্কেন্টাইল ব্যাংক। পোস্তগোলা শ্মশানঘাট এলাকার হাটে থাকবে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক। খিলগাঁওয়ের মেরাদিয়া বাজার এলাকায় ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, গোপীবাগ বালুর মাঠ ও কমলাপুর স্টেডিয়াম সংলগ্ন বিশ্ব রোডের আশপাশের খালি জায়গায় ঢাকা ব্যাংক, দনিয়া মাঠ সংলগ্ন হাটে এনসিসি ব্যাংক এবং ধূপখোলা এলাকায় থাকবে এসআইবিএল।

ধোলাইখাল ট্রাক টার্মিনাল সংলগ্ন উন্মুক্ত মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, আফতাবনগর ইস্টার্ন হাউজিং এলাকার হাটে ইস্টার্ন ব্যাংক, আমুলিয়া মডেল টাউনের আশপাশের খালি জায়গায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক এবং ডেমরা সারুলিয়া পশুর হাটে (স্থায়ী) সাউটইস্ট ব্যাংক বুথ স্থাপন করবে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে এবার ছয়টি হাটে থাকবে সাতটি বুথ। এর মধ্যে গাবতলী পশুর হাটে থাকবে রাষ্ট্রায়ত্ত অগ্রণী এবং আইএফআইসি ব্যাংকের বুথ।

উত্তরা ১৭ নং সেক্টরে থাকবে সোনালী ব্যাংক, কাওলা শিয়ালডাঙ্গা এলাকায় ইসলামী ব্যাংক, ৪৩ নং ওয়ার্ডের পূর্বাচল ব্রিজ সংলগ্ন মস্তুল ডুমনী বাজারমুখী রাস্তার উভয় পার্শ্বের খালি জায়গায় ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ভাটারা পশুর হাট জনতা ব্যাংক এবং উত্তরখান মৈনারটেক হাউজিং প্রকল্পের খালি জায়গায় রুপালী ব্যাংক বুথ স্থাপন করবে।

সূত্রঃ ডিপার্টমেন্ট অব কারেন্সী ম্যানেজমেন্ট, বাংলাদেশ ব্যাংক
ডিসিএম সার্কুলার লেটার নং- ০২/২০২০, তারিখঃ ২৩ জুলাই, ২০২০

Leave a Reply