পেমেন্ট অ্যান্ড সেটেলমেন্ট সিস্টেমস বিল উত্থাপন

0

ব্যাংক লেনদেনে অনিয়মের জন্য সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের সঙ্গে জরিমানার বিধান রেখে নতুন আইনের খসড়া সংসদে উঠেছে। সোমবার (২৮ মার্চ, ২০২২) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ‘পেমেন্ট অ্যান্ড সেটেলমেন্ট সিস্টেমস বিল-২০২২’ সংসদে তোলেন। পরে বিলটি এক মাসের মধ্যে পরীক্ষা করে সংসদে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

ব্যাংক বহির্ভূত প্রতিষ্ঠানগুলোর পরিশোধ কার্যক্রমও প্রস্তাবিত এই আইনের অধীনে আনা হয়েছে। বিলে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন ছাড়া কোনো পরিশোধ ব্যবস্থায় অংশ নিলে, পরিচালনা করলে বা ইলেট্রনিক মুদ্রায় পরিশোধ সেবা করলে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের জেল হবে অথবা ৫০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড হবে।

অনুমোদন প্রত্যাহার বা লাইসেন্স বাতিল হওয়ার পর লেনদেন করলেও একই দণ্ড হবে। পরিশোধ, নিকাশ এবং নিষ্পত্তি ব্যবস্থা সংহতকরণ, তত্ত্বাবধান ও নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে অর্থ লেনদেনের ঝুঁকি হ্রাস ও গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ সম্পর্কিত বিধান প্রণয়নের জন্য বিলটি আনা হয়েছে।

বিলে ডিজিটাল মুদ্রার সংজ্ঞায় বলা হয়েছে, ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানে বা সর্বজননীন ব্যবহারের উদ্দেশ্যে আইনস্বীকৃত মুদ্রার বিকল্প হিসাবে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রবর্তিত ইলেট্রনিক মুদ্রা। এছাড়া ইলেট্রনিক মুদ্রা, নিকাশ সেবা, নিষ্পত্তিসহ বিভিন্ন বিষয়ের সংজ্ঞা নির্ধারণ করা হয়েছে।

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ (A Platform for Bankers Community) প্রিয় পাঠকঃ ব্যাংকিং বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলো আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশ এ লাইক দিন এবং ফেসবুক গ্রুপ ব্যাংকিং ইনফরমেশন এ জয়েন করে আমাদের সাথেই থাকুন।

বিলে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংক বাংলাদেশে কার্যরত সকল পরিশোধ ব্যবস্থা পরিচালনাকারী, পরিশোধ ব্যবস্থায় অংশগ্রহণকারী বা পরিশোধ সেবাদানকারীর কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি প্রদান, তদারকি ও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে।

প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছে, পরিশোধ ব্যবস্থা সম্পর্কিত যেকোনো প্রতিষ্ঠানের জন্য মানদণ্ড নির্ধারণ করতে পারবে বাংলাদেশ ব্যাংক। প্রয়োজনে কোনো কর্তৃপক্ষ দ্বারা আন্তঃব্যাংক ইলেট্রনিক তহবিল স্থানান্তর ব্যবস্থাও পরিচালনা করতে পারবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এই আইনের অধীন সংঘটিত অপরাধ আমলযোগ্য ও অজামিনযোগ্য ও অ-আপোসযোগ্য হবে।

Leave a Reply