ব্যাংক আমানতে আবগারি শুল্ক বাড়ছে

0
359

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশঃ এখন থেকে জনগনকে বলতে হবে আমার ব্যাংকে ১ লক্ষ টাকা রাখুন, তিন মাস পরে ৯৯৯৫৬ টাকা ফেরৎ পাবেন, অনুগ্রহ করে টাকাটা আমার ব্যাংকে ডিপোজিট করুন…..

“ব্যাংকে চাকরী করতে গিয়ে শাখা পর্যায়ে পোস্টিং থাকাকালে এফডিআর এর ক্ষেত্রে একটা জিনিস লক্ষ্য করেছি। সেটা হলো এফডিআর হিসাবগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ এফডিআর এর প্রিন্সিপাল এ্যামাউন্ট হলো ১.০০ লক্ষ টাকা এবং মেয়াদ তিন মাস। এর কারণ হলো মধ্যবিত্ত বাঙ্গালি এবং গৃহিণীদের মধ্যে একটা প্রবণতা কাজ করে তা হলো, তাদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের পরিমাণ ১.০০ লক্ষ টাকা হলেই তারা এফডিআর করতে পছন্দ করেন। কারণ এতে কিছু মুনাফা পাওয়া যায় এবং টাকাটা অপ্রয়োজনে খরচের ভয় থাকে না। এছাড়া কারো কাছে হঠাৎ কিছু টাকা চলে আসলে যা তাদের কয়েক মাস পরে খরচ করতে হবে তখন তিনি তা স্বল্পমেয়াদীতে এফডিআর করে থাকেন।

যাই হোক এবার মূল প্রসঙ্গে আসি। সরকার আগামী পহেলা জুলাই থেকে ব্যাংক হিসাবের এ্যামাউন্ট ১.০০ লক্ষ ১ টাকা হতে ১০.০০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আবগারী শুল্ক (এক্সাইস ডিউটি)নির্ধারণ করেছেন ১০০০ টাকা। অর্থ্যাৎ আগামী কালকে আমাদের ব্যাংকে (জনতা ব্যাংক) কেউ ১.০০ লক্ষ টাকা তিন মাস মেয়াদে এফডিআর করলে মেয়াদ শেষে ৪.৫০% হার সুদে সুদ পাবেন ১১২৫ টাকা। উৎস কর (সোর্স ট্যাক্স) হিসাবে এই ১১২৫ টাকার ১৫% হিসাবে কাটা যাবে ১৬৯ টাকা এবং আবগারী শুল্ক ১০০০ টাকা। অর্থ্যাৎ মোট কাটা যাবে (১৬৯+১০০০)=১১৬৯ টাকা। তিন মাস পরে গ্রাহক ফেরত পাবে (১০০০০০+১১২৫-১১৬৯)=৯৯৯৫৬ টাকা। অর্থ্যাৎ গ্রাহক তিন মাস টাকা খাটানোর পর লাভ তো দূরের কথা উল্টো আসল হতে ৪৪ টাকা কম পাবে।

আর যারা October এর ১ তারিখের পরে ৩ মাস মেয়াদী FDR করবে তাদের কে ১৭ ও ১৮ সালের মোট ২ বছরের Excise Duty দিতে হবে। এ ক্ষেএে সে পাবে =৯৮,৯৫৬/।

ইতিমধ্যে পহেলা এপ্রিল ২০১৭ এর পর যারা তিন মাস মেয়াদে ১.০০ লক্ষ টাকা এফডিআর করেছেন তাদের সবার ক্ষেত্রেই এই ঘটনা ঘটবে। বেশির ভাগ প্রাইভেট ব্যাংক গুলোর এফডিআর সুদের হার আমাদের ব্যাংকের সমান বা সামান্য কমবেশি হওয়ায় তাদের ক্ষেত্রেও একই বিষয় হবে।
তিনমাস পর শাখায় গ্রাহকের সাথে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে এবং একজন ব্যাংকারের নৈতিক দায়িত্ব হিসাবে বিষয়টা সম্পর্কে সচেতন থাকতে ফ্রেন্ডলিস্টের সকল ব্যাংকার বন্ধুদের প্রতি আহ্বান রইল। এছাড়া অন্যান্য পেশার বন্ধুদের প্রতি আহ্বান রইল এফডিআর এ বিনিয়োগ করার আগে মেয়াদ শেষে সকল সরকারি কর্তন শেষে কত টাকা মুনাফা পাবেন তা আগে নিশ্চিত হয়ে বিনিযোগ করতে। সবাইকে ধন্যাবাদ।”

(সংগৃহীত)

Leave a Reply