ডিবিবিএল হোম লোন ঠিকানা

0
2247

ডিবিবিএল হোম লোন ঠিকানা ১% কিংবা ৩,০০০ টাকা প্রসেসিং ফী সম্বলিত একটি আকর্ষণীয় প্যাকেজ।

মূল বৈশিষ্ট্য
• লক-ইন পিরিয়ড- ১ বছর
• সর্বোচ্চ ঋণের মেয়াদ- ২৫ বছর
• অনুমোদন সময়কাল- সর্বনিম্ন ১ মাস
• দ্রুত ও সহজ প্রক্রিয়া
• লোনের পরিমাণ ১.২০ কোটি টাকা।

নির্বাচিত হওয়ার যোগ্যতা
• বয়স ১৮-৭০ বছর
• ন্যূনতম আয় প্রতিমাসে ৪০,০০০
• জামিনদারের সংখ্যা- ২ জন।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
• সর্বশেষ ১ বছরের ব্যাংক বিবরণী
• সর্বশেষ ট্যাক্স ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট
• ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি
• হোম ক্রেডিটের কিংবা টেকওভার লোনের নিবন্ধনকৃত মালিকানা দলিল
• হোম ক্রেডিট লোনের প্রাইস কোটেশন।

আবেদনপ্রার্থীর যোগ্যতা
কর্পোরেট ক্লায়েন্ট, ব্যক্তিগত ক্লায়েন্ট (অর্থাৎ ব্যবসায়ী ব্যক্তি এবং অন্যদের), বহুজাতিক কোম্পানির নির্বাহীরা ব্যাংকের নির্বাহীগণ/অনার্থিক প্রতিষ্ঠান, ডাক্তার/ইঞ্জিনিয়ার/চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টস/প্রতিরক্ষা কর্মকর্তাগণ এই লোনের জন্য যোগ্য হবেন।

ফি ও চার্জ
• প্রক্রিয়াকরণ ফি- ১%
• দ্রুত নিষ্পত্তি- ২%
• বিলম্বে পরিশোধ ফি- ৩%
• ডকুমেন্টেশন ফি- প্রযোজ্য নয়
• সম্পত্তির মূল্য নির্ধারণ চার্জ- সম্পত্তির মূল্য নির্ধারণের উপর ০.৫% হারে চার্জ।

প্রয়োজনীয় অন্যান্য বিষয়
১. লক-ইন-পিরিয়ড ৬ মাস
২. সর্বনিম্ন আয় ৪০,০০০ টাকা
৩. বীমার সুবিধা
৪. রেজিস্ট্রেশন খরচের জন্য কোন ফি নেই
৫. আমি কি পৌরসভা হোল্ডিং ট্যাক্স এর সুবিধা
৬. আয়কর বাট্টা
৭. সর্বোচ্চ লোনের পরিমাণ: ফ্ল্যাট কেনার জন্য ১ কোটি ২০ লক্ষ টাকা এবং সংস্কার ও নির্মাণ এর জন্য ৩ কোটি টাকা
৮. সর্বোচ্চ মেয়াদ: নতুন ফ্ল্যাটের জন্য ২৫ বছর, পুরাতন ফ্ল্যাটের জন্য ২০ বছর এবং নির্মাণাধীন ফ্ল্যাটের জন্য ১৫ বছর।
৯. সর্বোচ্চ প্রাপ্য লোনের পরিমাণ ৭৫%
১০. নির্মাণাধীন ভবনের লোনের জন্য কমপক্ষে ১ তলা সমাপ্ত থাকতে হবে।

Leave a Reply