একজন দক্ষ ব্যাংকারের জীবনী থেকে সংগৃহীত

0
12211

কোনো এক অফিসে হাবু নামক একজন অতি দক্ষ কর্মী ছিলেন। তিনি অন্য যেকোনো কর্মীর চেয়ে দ্রুত তার কাজ শেষ করে ফেলতে পারতেন। একদিন তার বস পাশ দিয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি দেখেন হাবু বেলা দুইটার সময় তাকে দেয়া সমস্ত ফাইল শেষ করে বসে আছেন রিল্যাক্সে। হাবুকে তিনি জিজ্ঞেস করতে সে বলল তার কাজ প্রতিদিন অতি দ্রুত সে শেষ করে ফেলে নিখুঁতভাবে। সময়ের আগেই সে কাজ শেষ করে ফেলে বলে বাকি সময় রিল্যাক্সে থাকে। বস অত্যন্ত খুশি হয়ে……………….! কী করলেন? ওয়েইট।

হাবুর পাশের ডেস্কে তার সমান পদবীর সহকর্মী গাবু কাজ করত। গাবু আবার দক্ষতার চেয়ে টাউটারিতে ওস্তাদ। সে কাজ তো করতে পারেই না উপরন্তু করার চেষ্টাও তার নেই। সে কি করে, সকালে এসে হাজিরা দিয়ে যায় নাস্তা, পান, বিড়ি খেতে। এরপর টেবিলে টেবিলে গিয়ে সবার হাড়ির খবর নেয়া, চোকলামী করা, মহিলা সহকর্মীদের সাথে আড্ডা দেয়া ইত্যাদি ইত্যাদি।

অতঃপর মোটামুটি বেলা হলে ফাইল নিয়ে বসে আস্তে আস্তে গদাই লস্করী চালে কাজ শুরু করে। তাও আবার পাতা উল্টাতে ন’মাস। এমনি করে তার টেবিলে কাজের পাহাড় জমে। তো একদিন হাবু ও গাবুর বস গাবুর টেবিলের পাশ দিয়ে যাবার সময় দেখেন বিকাল ৬টায়ও (ছুটির সময়) গাবুর টেবিলে গাদা গাদা ফাইল পেন্ডিং। আর সে ফাইলের স্তুপের পিছনে পড়ে আছে। গাবুকে জিজ্ঞেস করায় সে বলল কাজ শেষ করতে পারেনি, তাই স্তুপ। এই না অবস্থা দেখে বস রেগে মেগে……………………….! কী করলেন?

না, আপনারা যা ভাবছেন তা না।
হয়তো ভেবেছিলেন বস খুশি হয়ে হাবুকে বিরাট একটা পুরষ্কার ধরিয়ে দিলেন বা একটা প্রমোশান। আর রেগে মেগে গাবুকে লাগালেন এক রাম ধমক অথবা স্যালারি কেটে দিলেন?

স্যরি। মিসটেক করলেন। ওসব সত্যযুগে হত। এখনতো কলিযুগ পার হয়ে ডিজিটাল যুগ।

বস ভাবলেন যেহেতু হাবু দ্রুত কাজ করে ফেলে এবং তার হাতে ফ্রি টাইম থাকে তাই তিনি গাবুর কাছ হতে ফাইল নিয়ে হাবুকে দিলেন বাকি সময়ে করার জন্য। আর গাবুকে কি করলেন? যেহেতু গাবু সময়ের কাজ সময়ে করতে পারে না, তাই তিনি ভাবলেন গাবু হয়তো মানসিকভাবে ভাল নেই। তাই তার ফাইল কমিয়ে দিলেন এবং আপাতত গাবুর মানসিক উন্নতির জন্য অফিসের খরচে তাকে থাইল্যান্ডের পাতায়ায় চিত্ত বিনোদনে ট্যুরে পাঠালেন।

(গল্পটি সত্য এবং বাস্তব এর সাথে কোন ব্যাংকার ভাইয়ের মিলে গেলে এর জন্য ভাই আমাকে গালাগালি করবেন না)

সোর্সঃ সংগৃহীত

Leave a Reply