নতুন প্রযুক্তির সাহায্যে যেভাবে চেক টেম্পারিং হচ্ছে

0
9142

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশঃ ব্যাংকিং খাতে চেক জালিয়াতি কোনোভাবেই থামছে না। জালিয়াতি ঠেকাতে ম্যাগনেটিক ইঙ্ক ক্যারেকটার রিকগনিশন (MICR) চেক চালু করেও রেহাই মিলছে না। চেকের পাতা বা চেকবই চুরি, আসল চেকের সিরিয়ালে জাল চেক মুদ্রণ, স্বাক্ষর জালিয়াতি, চেকের মূল্যমান, গ্রাহকের নাম ও MICR লাইন প্রভৃতি ঘষামাজা ও পরিবর্তনের মাধ্যমে গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক চক্র। সাম্প্রতিক সময়ে গ্রাহকের হিসাব থেকে চেক জালিয়াতির মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের ঘটনা বেড়েছে।

অনলাইন ব্যাংকিং চালু, এমআইসিআর চেক প্রচলন ও অটোমেটেড ক্লিয়ারিং হাউস চালু হওয়ার পর ব্যাংকিং খাতে চেক নিষ্পত্তিতে নতুন গতি পায়। অনলাইন ব্যাংকিংয়ের কারণে গ্রাহকরা যে শাখায় অ্যাকাউন্ট ওই শাখা ছাড়াও ব্যাংকের অনলাইনভুক্ত অন্য শাখা থেকেও টাকা তুলতে ও জমা দিতে পারেন। এছাড়া অন্যান্য ব্যাংকের শাখা থেকে ক্লিয়ারিং এর মাধ্যমেও চেক জমা হয়ে থাকে৷ এতে চেক উপস্থাপনকালীন তা যাচাইয়ের জন্য ফিজিক্যালি প্লেস ব্যাংকের কাছে যেতে হয় না। ইমেজ দেখেই সব কিছু করে থাকে পেয়িং ব্যাংক। ফলে চেকের যে কোনো ধরনের টেম্পারিং সহজে বুঝার উপায় থাকে না।

বাজারে এমন এক বিশেষ ধরনের কলম এসেছে। যা দিয়ে কোন লেখা চেকের অংশ মুছে দিয়ে ইচ্ছা মত ফিগার বসিয়ে চেক জালিয়াতি করা হচ্ছে। তাছাড়া বাজারে এমন কিছু কেমিক্যাল পাওয়া যায়, যা দিয়ে আসল চেকের অনেক তথ্য তুলে ফেলা যায়। পরে পছন্দমতো নামে সেই চেক হবহু প্রিন্ট করা যায়। সিগন্যাচারও স্ক্যান করা যায়। এজন্য চেক জালিয়াতি করেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকছে জালিয়াত চক্র। তাই দয়া করে চেকের বিষয়ে সাবধানতা অবলম্বন করুন।

কিভাবে একটি বিশেষ কলম দ্বারা চেক টেম্পারিং করা হয় তা নিচের ভিডিওটি দেখলেই বুঝতে পারবেন। এই ভিডিওটি আপনার বন্ধু ও শুভাকাংখীদের সাথে শেয়ার করুন যাতে তারা সাবধানতা অবলম্বন করে।

Leave a Reply