ব্যাংক বন্ধ করা উচিত অর্থনীতির স্বার্থেই

0
3150

বিশ্বের এই দুর্যোগ মুহূর্তে বাংলাদেশের সরকারি বেসরকারি সকল প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও ব্যাংক সীমিত আকারে খোলা রাখা হবে। ব্যাংকিং এ সীমিত সেবা বলতে কিছু নেই। যার যতটুকু প্রয়োজন সে ততটুকুই সেবা নিবে।

বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত যত জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রুগী পাওয়া গেছে তার প্রায় সবকয়টি হয় প্রবাসী না হয় প্রবাসীদের আত্মীয় স্বজন অথবা তাদের দ্বারা সংক্রমিত। প্রবাসীদের দ্বারা এই ভাইরাস বাংলাদেশে যে বিস্তার লাভ করেছে তাতে কোন সন্দেহ নাই।

প্রবাসীদের সারাজীবনের সঞ্চয় ব্যাংকে জমা থাকে। তাদেরকে যে ভাবেই বন্দী করে রাখিনা কেন তাদের আর্থিক প্রয়োজনে তারা ব্যাংকে আসবেই।

ইদানীং একটি কথা বলাবলি হচ্ছে, স্বামী ইতালি থেকে দেশে আসবে শুনে স্ত্রীর পলায়ন। কিন্তু ব্যাংকারদের পালানোর সুযোগ নাই। তাই করোনা ভাইরাসে সংক্রমণের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকি ব্যাংকাররাই বহন করে।

বাংলাদেশের সকল অফিস বন্ধ রেখে যদি ব্যাংক খোলা রাখা হয়, তাহলে লাভ কি হবে। ষোল কোটি মানুষের মাঝে শুধু একজনই যথেষ্ট পুরো ষোল কোটিকে ঝুঁকিতে রাখার।

এক সপ্তাহ ব্যাংক বন্ধ থাকলে অর্থনীতির যে পরিমান ক্ষতি হবে, এই ব্যাংকারদের দ্বারা ভাইরাসটি বিস্তার লাভ করলে তার চেয়েও বেশি গুন খেসারত জাতিকে দিতে হবে। তাই বন্ধ করলে ব্যাংকসহ সকল অফিস আদালত বন্ধ করা হউক। না হয় সকল চেষ্টাই বৃথা যাবে।

কার্টেসিঃ আব্দুল বাতেন, ব্যাংকার

Leave a Reply