ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং

0
4083

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশঃ আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আলোচনা করব ব্যাংক এশিয়ার Agent Banking নিয়ে।

 এজেন্ট ব্যাংকিং এর সংজ্ঞা
এজেন্ট ব্যাংকিং হলো একটি বৈধ এজেন্সি চুক্তির অধীনে এজেন্টদের নিয়োগ দানের মাধ্যমে জনগণ এবং গ্রাহকদের সীমিত স্কেলে ব্যাংকিং এবং আর্থিক সেবা প্রদান।

Agent Banking এর সংজ্ঞায় বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে-
Agent Banking means providing limited scale banking and financial services to the underserved population through engaged agents under a valid agency agreement, rather than a teller/ cashier. It is the owner of an outlet who conducts banking transactions on behalf of a bank.

অর্থাৎ এজেন্ট ব্যাংকিং এর অর্থ হল টেলার বা ক্যাশিয়ারের পরিবর্তে কোন সংস্থার সাথে বৈধ চুক্তির অধীনে সীমিত স্কেলে ব্যাংকিং ও আর্থিক পরিষেবাগুলো এজেন্টের মাধ্যমে জনসাধারণের কাছে প্রদান করা। এটি একটি ব্যাংকের পক্ষে ব্যাংকের লেনদেন পরিচালনা করে এমন একটি আউটলেটের মালিক।

 ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং
● বাংলাদেশের নিরবচ্ছিন্ন জনসাধারনের দোরগোড়ায় কম খরচে আর্থিক অন্তর্ভুক্তির অংশ হিসাবে সুরক্ষিত ও সুনিয়ন্ত্রিত আর্থিক সেবা প্রদান করা।
● বাংলাদেশের গ্রামীণ এবং বিচ্ছিন্ন ব্যাংক বহির্ভূত সাধারণ নাগরিকদের প্রযুক্তি ভিত্তিক ব্যাংকিং সেবা প্রদানের মাধ্যমে আরো সুরক্ষিত আর্থিক মাধ্যম তৈরি করা।

 ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের উদ্দেশ্য
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের সাফল্য নিম্নলিখিত উদ্দেশ্য পূরণের উপর নির্ভর করেঃ
● সমগ্র দেশে ব্যাংক বহির্ভুত জনগণের কাছে সুরক্ষিত ব্যাংকিং পরিষেবা প্রদান করা।
● সমগ্র দেশে এজেন্ট বুথগুলো তৈরি করা এবং আর্থিক পরিষেবা উদ্যোক্তা তৈরি করা।
● সমগ্র দেশ জুড়ে জেলা/ উপজেলা পর্যায়ের অফিস চালু করা।
● প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স সেবা প্রদান।
● ইউটিলিটি বিল পেমেন্ট, পাসপোর্ট ফি পেমেন্ট, সোশ্যাল সেফটি নেট পেমেন্ট সার্ভিস ইত্যাদি সুবিধা প্রদান করা।
● এজেন্ট পয়েন্ট থেকে কৃষি, এসএমই এবং খুদ্র ঋণ প্রদান।
● এজেন্ট পয়েন্ট মাধ্যমে ই কমার্স সেবা প্রদান।
● স্থানীয় এলাকায় স্কুল ব্যাংকিং সেবা প্রদান।
● সম্ভাব্য খুদ্র ও এসএমই উদ্যোক্তা গড়ে তোলা।

 ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের সেবা সমূহ
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের আওতায় নিম্নলিখিত সেবা সমূহ দিয়ে থাকেঃ
● সঞ্চয়ী ও চলতি হিসাব খোলা;
● স্কুল ব্যাংকিং হিসাব খোলা;
● মাসিক সঞ্চয়ী হিসাব খোলা;
● মেয়াদী সঞ্চয়ী হিসাব খোলা;
● নগদ জমা ও উত্তোলন;
● ফান্ড ট্রান্সফার (ব্যাংক এশিয়ার যে কোন হিসাবে);
● EFTN এর মাধ্যমে ফান্ড ট্রান্সফার (যে কোন ব্যাংকের হিসাবে);
● বৈদেশিক রেমিটেন্স এর অর্থ প্রদান;
● বিদ্যুৎ বিল প্রদান;
● পাসপোর্ট ফি গ্রহন;
● ক্ষুদ্র ও মাঝারি ঋণ প্রদান;
● ভোক্তা ঋণ প্রদান;
● কৃষি ঋণ প্রদান;
● ডেবিট কার্ড প্রদান;
● ব্যাংকিং সকল কার্যক্রম ও অন্যান্য সুবিধা প্রদান।

 এজেন্ট ব্যাংকিং এর জন্য যোগ্য ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং নিম্নলিখিত যোগ্য ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে থাকেঃ
● আইটি ভিত্তিক আর্থিক সেবা পরিচালনা করতে সক্ষম শিক্ষিত ব্যক্তি;
● ফার্মেসী, দোকান এবং পেট্রোল পাম্প/ গ্যাস স্টেশনের মালিক;
● এজেন্টকে আর্থিকভাবে সচ্ছল এবং যথেষ্ট নগদ লেনদেনের ক্ষমতা থাকতে হবে;
● ব্যাক্তিগত প্রতিষ্ঠান
● একক মালিকানা
● অংশীদারী ব্যবসা
● মোবাইল নেটওয়ার্ক অপারেটরের এজেন্ট।

 যারা এজেন্ট হতে পারবেন
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ে নিম্নলিখিত ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এজেন্ট হতে পারবেনঃ
● এজেন্টকে স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে (এনআইডি/ পাসপোর্ট অনুযায়ী)
● এজেন্টের কাছে এজেন্ট ব্যাংকিং পরিচালনার জন্য পর্যাপ্ত অবকাঠামো থাকতে হবে।
● এজেন্ট ঋণ খেলাপি হতে পারবেনা এবং কোন সিভিল বা ফৌজদারি আদালত দ্বারা দণ্ডিত হওয়া যাবেনা।

 এজেন্টের দায়-দায়িত্ব
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ে এজেন্ট নিম্নলিখিত দায়-দায়িত্ব পালন করতে হবেঃ
● এজেন্টকে সৎ, পেশাদারী এবং নৈতিকতা সম্পন্ন হতে হবে;
● এজেন্ট তার দায়িত্ব সম্পর্কে সঠিক জ্ঞান থাকতে হবে এবং এজেন্ট ব্যাংকিং গ্রাহককে সকল সেবা প্রদান করতে হবে;
● ইলেকট্রনিক ডিভাইসের রক্ষণাবেক্ষণ (কম্পিউটার, পিওএস প্রিন্টার, ফিঙ্গার প্রিন্ট মেশিন ইত্যাদি) এবং এগুলোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে;
● এজেন্ট সব ধরনের লেনদেন রেকর্ড, প্রমাণ এবং কাজের সংরক্ষণ করবে;
● এজেন্ট তার বুথে এজেন্ট ব্যাংকিং সেবার চার্জ প্রদর্শন করবে;
● এজেন্ট সব ধরণের অডিট করতে আন্তরিকভাবে সহযোগিতা করবে;
● ছোট ছোট ঋণ বিতরণ এবং কিস্তি আদায় করতে হবে;
● ক্লিয়ারিং এর জন্য চেক গ্রহন;
● বেতন, পেনশন স্কিম এবং অন্যান্য গ্র্যাচুইটি সেবা প্রদান;
● প্রয়োজনীয় ব্যাংকিং ই-মেইল ও চিঠি সংগ্রহ ও সংরক্ষণ।

 এজেন্টরা যেসব কার্যক্রম করতে পারবে না
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ে এজেন্টরা নিম্নলিখিত কার্যক্রম করতে পারবে নাঃ
● এজেন্ট গ্রাহকদের জন্য নির্ধারিত চার্জ ছাড়া অন্য কোন চার্জ প্রয়োগ করতে পারবে না;
● এজেন্ট ব্যাংক এশিয়ার অনুমোদন ছাড়া অন্য কোন সেবা প্রদান করতে পারবে না;
● এজেন্ট আঙ্গুলের ছাপ ও কার্ড ব্যতীত চেক দ্বারা কোন লেনদেন করতে পারবে না;
● আর্থিক লেনদেনের পরিপ্রেক্ষিতে এজেন্ট গ্রাহকদের কাছ থেকে অ্যাকাউন্টের বিবরণ এবং গ্রাহকের PIN নম্বর সহ কোন ধরনের ব্যক্তিগত তথ্য জিজ্ঞাসা করতে পারবে না;
● এজেন্ট কোনও লিখিত অনুমতি ছাড়া ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের পাশে অন্য কোনও ব্যাংকিং ব্যবসার সাথে জড়িত হতে পারবে না;
● এজেন্ট তাদের পক্ষে সাব-এজেন্ট নিয়োগ করতে পারবে না;
● এজেন্ট কোন বিদেশী রেমিটেন্স সরাসরি লেনদেন করতে পারবে না;
● যে কোনও লেনদেনের উপর সীমাবদ্ধতা ব্যতীত এজেন্টকে ব্যাংক এশিয়ার নির্দেশিকা অনুসরণ করতে হবে।

 আবেদনপত্র পাঠানোর ঠিকানা
ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং, এ.ডি.সি. ডিপার্টমেন্ট, বেঙ্গল সেন্টার (৬ষ্ঠ তলা), ২৮, তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০।

 প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সমূহ
আবেদন পত্রের সাথে নিম্নলিখিত দলিলাদি সংযুক্ত করতে হবেঃ
১. সম্পূর্ণভাবে পূরণকৃত আবেদনপত্র,
২. আবেদনকারীর ২(দুই) কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ছবি,
৩. নবায়নকৃত ট্রেড লাইসেন্সের সত্যায়িত ফটোকপি (যদি থাকে)
৪. TIN সার্টিফিকেটের সত্যায়িত ফটোকপি,
৫. এজেন্টের CIB রিপোর্ট।
৬. এজেন্ট ফিটনেস সার্টিফিকেট।
৭. পুলিশ ভেরিফিকেশন রিপোর্ট।
৮. VAT রেজিস্টেশন সার্টিফিকেটের সত্যায়িত ফটোকপি, (প্রযোজ্য হলে),
৯. ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের গত এক (০১) বছরের ব্যাংক হিসাবের বিবরনী,
১০. জাতীয় পরিচয় পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি,
১১. সাইনবোর্ড সহ ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের ফটোগ্রাফ,
১২. ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের লোকেশন ম্যাপ,
১৩. বিদ্যুৎ/ গ্যাস বিলের ফটোকপি,
১৪. দোকান/ অফিস ভাড়ার চুক্তিপত্র,
১৫. পরিচালক মন্ডলী বা অংশীদারগণের সম্মতিপত্র (প্রযোজ্য হলে),
১৬. পরিচয় প্রদানকারীর স্বাড়্গর ও সীল।
১৪. অংশীদারিত্ব চুক্তিনামা বা মেমোরেন্ডামের ফটোকপি (প্রযোজ্য হলে)।

● ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং ম্যানুয়াল পেতে ক্লিক করুন এখানে
● ব্যাংক এশিয়া এজেন্ট ব্যাংকিং আবেদন ফরম পেতে ক্লিক করুন এখানে

আজ এ পর্যন্ত। ভাল থাকবেন। আল্লাহ হাফিজ।

Leave a Reply