আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের ডিজিটাল ইসলামী ওয়ালেট চালু

0
1084

ব্যাংকিং নিউজ বাংলাদেশঃ আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক ও আর্থিক প্রযুক্তিগত সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ডিমানি বাংলাদেশে সর্বপ্রথম ‘ডিজিটাল ইসলামী ওয়ালেট’ সেবা চালু করছে। ব্যাংকিং সেবার বাইরে রয়েছেন এমন সব মানুষদের জন্য ‘ডিজিটাল ইসলামী ওয়ালেট’ সেবা যুক্ত করে দেশে বিদ্যমান ব্যাংকিং সেবায় সম্প্রসারিত নতুন দিগন্ত বলে বলছেন প্রতিষ্ঠান দুটির কর্মকর্তারা। ডিজিটাল ইসলামী ওয়ালেটে গ্রাহকরা ক্যাশ-ইন, ক্যাশ-আউট, মোবাইল এয়ারটাইম টপ-আপ, বিল পরিশোধ, মার্চেন্ট পেমেন্ট, ইন্সুরেন্স প্রিমিয়াম পেমেন্ট, মোবাইল ওয়ালেট মানি ট্রান্সফার, ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে সংযুক্ততা, তৃতীয়-পক্ষ সফটওয়্যার সংযুক্ততা, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা উত্তোলন, টিউশন ফি পরিশোধ, এনএফসি পেমেন্ট, কিউআর পেমেন্ট, দান ও আন্তর্জাতিক লেনদেনসহ অন্যান্য আরো পেমেন্ট সেবা প্রদান করতে পারবেন ডিমানির সাহায্যে।

এছাড়াও ব্যাংকিং সেবার বাইরের জনগোষ্ঠীর বেতন ব্যবস্থাপনায় সহায়তা করবে ‘ডিজিটাল ইসলামী ওয়ালেট’। থাকছে ওয়ালেটে ব্যবহারকারীদের জন্য রিওয়ার্ড পয়েন্ট সুবিধা। ডিমানির চেয়ারম্যান অঞ্জন চৌধুরী বলেন, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের অংশীদারিত্বে দেশে প্রথমবারের মতো ‘ইসলামী ওয়ালেট’ চালু করতে পেরে তারা আনন্দিত। দেশে আমাদের শরীয়াহভিত্তিক প্রচুর গ্রাহক রয়েছেন এবং আমাদের লক্ষ্য এ গ্রাহকদের সেবাদান করা।

তিনি বলেন, আমরা শুধুমাত্র দেশের গ্রাহকদের নিয়েই কাজ করবো না, পাশাপাশি বৈশ্বিক গ্রাহকদের নিয়েও কাজ করবো। শিগিগরই এ সম্পর্কে সুসংবাদ দিতে পারবের বলে প্রত্যাশা তাদের। চুক্তি স্বাক্ষরে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান আলহাজ আবদুস সামাদ বলেন, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের সেবার সম্প্রসারণ, নতুন ডিপোজিট সংগ্রহ এবং আধুনিক ব্যাংকিং ব্যবস্থায় সংযুক্ত হওয়ার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। মোবাইল অ্যাপ, সোশ্যাল নেটওয়ার্ক, ওয়েব পোর্টাল, কার্ড প্রসেসিং, POS, এনএফসি এবং কিউআর পেমেন্টসে ডিমানির দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা আমাদের গ্রাহকদের আগের চেয়েও উন্নত সেবাদানে সহায়তা করবে। ডিমানির সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও ভাইস চেয়ারম্যান সোনিয়া বশির কবির বলেন, ডিজিটাল ও শরীয়াহ ভিত্তিক হতে পারে এবং ইসলামী ফাইন্যান্স, ফিনটেক (ফাইন্যান্সিয়াল টেকনোলোজি) এর ক্ষেত্রে অত্যন্ত ফলপ্রসূ।

ইসলামী ফাইন্যান্সের অন্যতম সুবিধা হচ্ছে ‘অন্তর্ভুক্তি’ এবং ‘ডিজিটাল স্ট্রাটেজি’ এর সুযোগকে উন্মুক্ত করে। তিনি বলেন, শরীয়াহ ভিত্তিক গ্রাহকদের চাহিদা ও প্রয়োজন পূরণে ইসলামী ফাইন্যান্সের জন্য ডিজিটাল উদ্ভাবন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আল-আরাফহ ইসলামী ব্যাংকের অংশীদারিত্বে ডিমানি দেশে প্রথমবারের মতো ইসলামী ওয়ালেট নিয়ে এসেছে, এজন্য আমি অত্যন্ত আনন্দিত। ডিমানি বাংলাদেশের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরেফ বশির বলেন, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের সঙ্গে বাংলাদেশে ইসলামী ওয়ালেট মডেলের যাত্রা শুরু করতে পেরে ডিমানি অত্যন্ত আনন্দিত। সদস্য ব্যাংকগুলোকে আমরা আহ্বান জানাই যেনো ডিজিটাল পেমেন্টের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের আমরা সম্পূর্ণ নতুন ও স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ সুবিধা প্রদান করতে পারি। চুক্তি স্বাক্ষরে ডিমানি এবং আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply